ঢাকা, রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ অক্টোবর ২০২০, ১৮:১০

প্রিন্ট

থাইল্যান্ডে বিক্ষোভের খবর প্রচারে টিভি সম্প্রচার বন্ধ

থাইল্যান্ডে বিক্ষোভের খবর প্রচারে টিভি সম্প্রচার বন্ধ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সরকারের সমালোচনা করায় একটি অনলাইন টেলিভিশন স্টেশনের সম্প্রচার স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছে থাইল্যান্ডের আদালত। আরব নিউজ, ব্যাংকক পোস্ট, রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

বুধবার এক নির্দেশ থাইল্যান্ডের আদালত জরুরি অবস্থা লঙ্ঘনের অভিযোগে দেশটির অনলাইন টিভি স্টেশন ভয়েস টিভি বন্ধের নির্দেশ দেয়।

দেশটিতে তিন মাসের বেশি সময় ধরে চলে আসা বিক্ষোভ-প্রতিবাদের অবসানে সরকারের নেয়া জরুরি পদক্ষেপ লঙ্ঘন করায় ওই টেলিভিশন স্টেশন স্থগিত করা হয়। এদিকে আরও তিনটি গণমাধ্যমকে নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে থাই কর্তৃপক্ষ।

দেশটির ডিজিটাল মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র পুতচাপং নডথাইসং বলেন, ‘ভুয়া তথ্য’ আপলোড করে ভয়েস টিভি থাইল্যান্ডের কম্পিউটার অপরাধ আইনও লংঘন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচা ও রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভ বন্ধে থাইল্যান্ডের সরকার তাদের দৃষ্টিতে ক্ষতিকারক মনে হওয়া সংবাদ প্রকাশ ও বিক্ষোভে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এতে দেশটির সরকার বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের সমালোচনা কুড়িয়েছে।

ভয়েস টিভির প্রধান সম্পাদক রিত্তিকর্ন মাহাখাছাভর্ন বলেন, আদালতের আদেশ তাদের হাতে না পৌঁছানো পর্যন্ত তারা সম্প্রচার অব্যাহত রাখবেন।

তিনি জানান, আমরা জোরালোভাবে জানাচ্ছি যে আমরা সাংবাদিকতার নীতির ভিত্তিতে কাজ করে যাচ্ছি এবং আমরা এখনো আমাদের কাজ চালিয়ে যাবো।

ভয়েস টিভির একাংশের মালিকানা সিনাওয়াত্রা পরিবারের। থাইল্যান্ডের সাবেক দুই প্রধানমন্ত্রী থাকসিন ও ইংলাক সিনাওয়াত্রা এ পরিবারের সদস্য। ২০১৪ সালে এক অভ্যুত্থানে ইংলাককে ক্ষমতাচ্যুত করেছিলেন তৎকালীন সেনাপ্রধান প্রায়ুথ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত