ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৩৮

প্রিন্ট

করোনার ভয়ে বিমানবন্দরেই ৩ মাস

করোনার ভয়ে বিমানবন্দরেই ৩ মাস
সংগৃহীত ছবি

জার্নাল ডেস্ক

করোনা সংক্রমণের ভয়ে বিমান ধরে বাড়ি না ফিরে, বন্দরেই তিন মাস কাটিয়ে দিয়েছেন আদিত্য সিং নামের এক ব্যক্তি। যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো বিমানবন্দরে আদিত্য’র অবস্থানের বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এমন খবর প্রকাশ করেছে।

বিবিসি জানায়, এয়ারলাইন্সের একজন কর্মী আদিত্যকে তার আইডি কার্ড দেখাতে বললে তিনি একটি ব্যাজ দেখান। কিন্তু ওই ব্যাজটি আসলে বিমানবন্দরের একজন অপারেশন ম্যানেজারের। যিনি গত অক্টোবরে সেটি হারিয়ে যাওয়ার কথা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিলেন।

পুলিশ জানায়, গত ১৯ অক্টোবর লস অ্যাঞ্জেলেস থেকে শিকাগোর ও’হারে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যান আদিত্য। কিন্তু মহামারীর মধ্যে আর ফ্লাইটে চড়ার সাহস করতে না পেরে তিনি বিমানবন্দরেরই প্রবেশ সংরক্ষিত এলাকায় থেকে যান।

‘শিকাগো ট্রিবিউন’ পত্রিকাকে রাজ্যের সহকারী এটর্নি ক্যাথলিন হ্যাগের্টি বলেন, কোভিডের কারণে তিনি (আদিত্য) বাড়ি ফিরতে ভয় পাচ্ছিলেন। যাত্রীদের দেওয়া খাবার খেয়েই তিনি এতদিন সেখানে ছিলেন।

এ ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন কুক কাউন্টির বিচারক সুসানা ওর্তিজ। তিনি বলেন, ‘যদি আমি ঠিকঠাক বুঝে থাকি তবে আপনি আমাকে বলতে চাইছেন, বাইরের একজন মানুষ যিনি বিমানবন্দরের কর্মী নন তিনি ও’হারে বিমানবন্দর টার্মিনালের প্রবেশ সংরক্ষিত অংশে ১৯ অক্টোবর ২০২০ থেকে ১৬ জানুয়ারি ২০২১ পর্যন্ত অবস্থান করেছেন এবং কেউ তাকে সন্দেহ করেনি? আপনি আসলে কী বলছেন তা আমি ঠিকমত বুঝতে চাই।’

আদিত্য লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি শহরতলীতে বাস করেন। তার অতীত অপরাধের কোনও রেকর্ড নেই। তবে কেন তিনি শিকাগো গিয়েছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তার বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধ ঘটানোর উদ্দেশ্যে সংরক্ষিত এলাকায় অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনা হয়েছে। জামিনের জন্য আদিত্যকে এক হাজার মার্কিন ডলার দিতে হবে। এই অর্থ জমা দিয়ে জামিন পেলেও তাকে বিমানবন্দরে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

বিচারক ওর্তিজ বলেন, ‘যে সময়ে এই কাণ্ড ঘটেছে আদালতের কাছে সেটি খুবই হতাশাজনক। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে যাত্রীদের সম্পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে, যেন লোকজন নিরাপদে ভ্রমণ করতে পারে। যে অভিযোগ উঠেছে তাতে আমি মনে করি ওই ব্যক্তি যাত্রীদের জন্য বিপদজনক হয়ে উঠতে পারতেন।’

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত