ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৯, ১১:০৯

প্রিন্ট

শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় মাদক চক্র জড়িত: সিরিসেনা

শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় মাদক চক্র জড়িত: সিরিসেনা
ফাইল ফটো
অনলাইন ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা বলেছেন, ইস্টার সানডের দিন সে দেশের গির্জা ও হোটেলগুলোতে যে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছিলো তার পিছনে রয়েছে আন্তর্জাতিক মাদক চোরাচালান চক্র। যদিও এর আগে ওইসব হামলার জন্য ইসলামি জঙ্গিদের দায়ী করা হয়েছিলো।

শ্রীলঙ্কা জুড়ে মাদক পাচার বন্ধে তৎপর রয়েছে পুলিশ ও সেনারা। এই সময় মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িতদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনতেই প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা এই মন্তব্য করেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে গত ২১ এপ্রিলে তিনটি গির্জা ও তিন হোটেল লক্ষ্য করে চালানো আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ২৫৮ জন নিহত হন। এই হামলার জন্য স্থানীয় জিহাদি গোষ্ঠী ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত’কে দায়ী করেছিলো শ্রীলঙ্কা সরকার। এর দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছিলো আন্তর্জাতিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট। এর জের ধরে তখন শতাধিক মুসলিম নারী-পুরুষকে আটক করা হয়েছিলো।

ওই হামলার পরদিন সিরিসেনার কার্যালয় থেকে বলা হয়েছিলো, স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীরা মিলে শ্রীলঙ্কায় এই ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে।

কিন্তু সোমবার এক বিবৃতিতে সিরিসেনা ইস্টার সানডের দিনে চালানো ওই হামলার জন্য আন্তর্জাতিক মাদক চোরাকারবারিদের দায়ী করলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘মাদক সম্রাটরা আমাকে এবং আমার মাদক বিরোধী লড়াইকে থামিয়ে দিতেই এই হামলা চালিয়েছে। কিন্তু আমি থেমে থাকবো না। মাদকের বিরুদ্ধে আমার লড়াই অব্যাহত থাকবে।’

তবে প্রেসিডেন্টের এই বিবৃতির সঙ্গে দ্বিমত প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী রণিল বিক্রমাসিংহে। তার মুখপাত্র সুদর্শনা গুণাবর্ধনে সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘ওই হামলার সঙ্গে মাদক পাচারকারীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। আমাদের তদন্ত নিয়ে সন্দেহ করার কোনো অবকাস নেই। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ওই হামলার সম্পূর্ণ তদন্ত প্রকাশ করবে পুলিশ।’

সূত্র: ডেকান ক্রোনিকল

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
close
close