ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৩:১৬

প্রিন্ট

হাসপাতালে ভয়াবহ হামলা, নিহত ২০

হাসপাতালে ভয়াবহ হামলা, নিহত ২০
অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় জাবুল প্রদেশের এক হাসপাতালে ভয়াবহ গাড়িবোমা হামলায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো শতাধিক মানুষ। হতাহতদের অধিকাংশই রোগী ও চিকিৎসক।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি।

বৃহস্পতিবার সকালে জাবুল প্রদেশের কালাত শহরের ওই হাসপাতালে গাড়িবোমা হামলা চালানো হয়। হামলায় তাৎক্ষণিকভাবে ২০ জন নিহত এবং আরো শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে নিহতদের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জাবুল প্রদেশের গভর্নর জানান, হামলায় হাসপাতাল ভবনটিও ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

হাসপাতাল সংলগ্ন আবাসিক এলাকার বাসিন্দারা জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে বিকট শব্দে বোমাটি বিস্ফোরিত হয়। এর প্রভাবে তাদের ঘরবাড়ি কেঁপে উঠেছিলো। বোমা হামলার পর স্থানীয় সময় ৬টার দিকে শুরু হয় গোলাগুলি।

এই অবস্থাকে ‘ভয়াবহ’ বলে বর্ণনা করেছেন আতিফ বালুচ নামের এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী। এর আগে এই এলাকায় এত ভয়াবহ হামলা দেখেননি বলেও তিনি জানিয়েছেন।

হামলার পর গোটা হাসপাতাল এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের সন্ধানে ঘটনাস্থলে ছুটে যান তাদের স্বজনেরা।

এদিকে হামলার পরপরই দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে জঙ্গি গোষ্ঠী তালেবান। দলের মুখপাত্র কারি ইউসুফ আহমাদি ওই বিবৃতিতে বলেন, হাসপাতালে হামলা চালানো তাদের উদ্দেশ্য ছিলো না। তারা আফগান নিরাপত্তা বিভাগ ন্যাশনাল ডিরেকটোরেট অব সিক্যুরিটি (এনডিএস) ভবনকে লক্ষ্য করে হামলাটি চালিয়েছিলো। কিন্তু হামলায় ওই ভবন সংলগ্ন হাসপাতালটিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তালেবানদের সঙ্গে চলমান আলোচনা বাতিল ও তাদের সঙ্গে কোনোরকম শান্তি চুক্তির সম্ভবনা নাকচ করে দেয়ার পর সেখানে নতুন করে হামলা শুরু করেছে জঙ্গি গোষ্ঠীটি। এর মাত্র একদিন আগে গত মঙ্গলবার আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির নির্বাচনী মিছিলে চালিয়েছিলো তালেবানরা। এই হামলায় অন্ততপক্ষে ৪৮ জন নিহত এবং আরো ৩০ জন আহত হয়েছিলো।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত