ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ৮ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২১ মে ২০১৯, ১৩:২১

প্রিন্ট

ঈদে বাহারি শিশু পোশাক

ঈদে বাহারি শিশু পোশাক
জার্নাল ডেস্ক

রমজান মাসের অর্ধেক চলে গেল আর কিছু পরই ঈদ। তাই তো রোজা রেখে হলেও বিভিন্ন দোকানে ঘুরছেন ক্রেতারা। পরিবারে যাদের জন্য প্রথমেই কাপড় কেনা হয় তাদের মধ্যে শিশুরাই প্রথম। বাজার ঘুরে দেখা গেল এবার ঈদের পোশাক বাজারে ১২ বছর বয়সী শিশুদের জন্য রং বাহারি নকশার পোশাক এসেছে।

মেয়েদের জন্য

এবার ঈদে মেয়ে শিশুদের পোশাকে বিক্রির শীর্ষে আছে সালোয়ার-কামিজ ও ফ্রক। আরামদায়ক কাপড় ও নকশা বেছে নেয়া হয়েছে পোশাকে। অনেক হাউজে বড়দের সঙ্গে ডিজাইন ও নকশা মিলিয়ে ডিজাইন হয়েছে ছোটদের সালোয়ার-কামিজে। কামিজের সঙ্গে রাখা হয়েছে প্যান্ট কাটের সালোয়ার বা চুড়িদার। কাপড় হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি, সিল্ক, এন্ডি কটন, এন্ডি সিল্ক, হাফসিল্ক। আবার গরমের জন্য হাতা কাটা সালোয়ার-কামিজই বেশি পছন্দ করছে তারা। কামিজের সঙ্গে পালাজ্জো বা স্কার্ট ও ওড়না সেট এবার ঈদে বিশেষ আকর্ষণ। কিছ কিছু কামিজের সঙ্গে কটিও রাখা হয়েছে। মেয়ে শিশুদের ফ্রকে সুতি এবং পাতলা লিনেন কাপড়ের আধিক্য দেখা গেছে। তবে উৎসব মানেই জমকালো পোশাক তাই সুতি ছাড়াও সিল্ক, টিস্যু ও জর্জেট কাপড় বেছে নেয়া হয়েছে। চুমকি, জরির কাজে ফুল, প্রজাপতি ও কার্টুন ছাড়াও প্রিন্টেড ফ্রকের কালেকশনে ফুলেল মোটিফ ব্যবহার বেশি চোখে পড়ে।

ছেলেদের জন্য

ঈদের ছেলে শিশুদের জন্য বাবার সাথে মিলিয়ে পাঞ্জাবি দেখা গেছে। আর পাঞ্জাবিতে এবার অনেক রঙের ব্যবহার হয়েছে। লাল, কমলা, নীল, বেগুনি, সবুজ, গোলাপি, আকাশিসহ উজ্জ্বল সব রং ব্যবহার হয়েছে শিশুদের পাঞ্জাবিতে। এবার পাঞ্জাবিতে যে নতুন ডিজাইন চলছে তা হলো শিশুদের কাবলি সেট। পায়জামা-পাঞ্জাবি ও কটি সেটের পাশাপাশি আলাদা করে কটিও কিনে নিচ্ছেন অনেকে। তবে ঈদে শুধু কি পাঞ্জাবি পেলেই হবে চাই টি-শার্ট ও শার্ট। গরমে এখানেও আরামদায়ক সুতি কাপড় বেছে নেয়া হয়েছে। একরঙা শার্টের পাশাপাশি বিভিন্ন পাতা ও ফুলের প্রিন্টেড নকশা হয়েছে।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত