ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৩

প্রিন্ট

বছরে এমপিওর এক মাসের বেশি টাকা থাকবে না

বছরে এমপিওর এক মাসের বেশি টাকা থাকবে না
মো. আলী এরশাদ হোসেন আজাদ

কারিগরি বোর্ড অধিভুক্ত শিক্ষকদের জানুয়ারি ২০১৯-র বেতন থেকে ‘অবসর-কল্যাণে’র ১০% কর্তনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সহসাই হয়তো ‘মাউশি’র অধিভুক্ত শিক্ষকদের ক্ষেত্রে অনুরূপ নীতি অনুসরণ করা হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এমপিওভুক্তদের প্রত্যাশিত ৫% বাস্তবায়ন করলেন, আমাদের জন্য সরকারিদের অনুরূপ বৈশাখীভাতার ঘোষণাও দিয়েছেন। তিনি এমপিওভুক্তদের অবসর ও কল্যাণভাতা পেতে যেন বিলম্ব না হয়, এজন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দও করেছেন। ফলে ভোগান্তিও কমেছে। এখন নতুন করে বর্ধিত ৪% কর্তনের বিশেষ যৌক্তিকতা খুঁজে পাচ্ছি না। বরং বিষয়টি দাঁড়াল, ৫% দিয়েই ৪% কর্তন! ‘জেনারেল প্রভিডেন্ট ফান্ড রুলস, ১৯৭৮’-র ৯ (১) (বি) সংশোধিত ধারায় আছে, ‘সরকারি চাকরিজীবী তাঁর মূল বেতনের সর্বনিম্ন ৫% থেকে সর্বোচ্চ ২৫% প্রভিডেন্ট ফান্ডে জমা রাখতে পারবেন’। আমরা এমপিওভুক্তগণ সরকারের কাছ থেকে ‘অনুদান’ পেয়ে অবসর-কল্যাণে ৬% জমা রাখি। আমাদের জন্য পূর্ণাঙ্গ উত্সবভাতা, বাড়িভাড়া, চিকিত্সাভাতা, গৃহঋণ ইত্যাদি চালু হবার আগেই ১০% কর্তনের নির্দেশনায় আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হব। এতে বছরে এমপিওর এক মাসের বেশি টাকা থাকবে না। আয়কর বাবদও যাবে অনেক টাকা। ফলে দৈনন্দিন ব্যয় সামলে নিজের চিকিত্সা, সামাজিকতাসহ অনেক বিষয়ে থাকতে হবে অসহায়। এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

লেখক: সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ইসলামিক স্টাডিজ, কাপাসিয়া ডিগ্রি কলেজ, কাপাসিয়া,

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
close
close