ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ আপডেট : ৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২০, ১২:৪৮

প্রিন্ট

সিটি নির্বাচন

ভোটের তারিখ পরিবর্তন ইসির এখতিয়ার: কাদের

ভোটের তারিখ পরিবর্তন ইসির এখতিয়ার: কাদের
জার্নাল ডেস্ক

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটের তারিখ পরিবর্তন সম্পূর্ণ নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে সম্পাদক মন্ডলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব সরস্বতী পূজা। এ ধর্মীয় উৎসবের প্রতি সম্মান দেখিয়ে তাদের সঙ্গে ইসি আলাপ-আলোচনা করে একটা সমাধান করতে পারে।

কাদের বলেন, নির্বাচন আগানো বা পেছানো ইসির এখতিয়ার। এ ব্যাপারে আমাদের সরকারের কোনো কিছু বলার বা করার ছিল না। এখানে সরকারকে দোষারোপ করা অযোক্তিক।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতি নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে মন্তব্য করেছেন, তা বিভ্রান্তিকর। কারণ তিনি নিজেও ইভিএম পদ্ধতিতে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন বগুড়া সদর আসন থেকে। সর্বশেষ ইভিএমে বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া পৌরসভায় যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে, তাতে বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, বিএনপি নেতারা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দলের নেতাদের বিরুদ্ধে যেভাবে কথা বলছেন, অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করছেন, যখন যা খুশি তাই বলছেন, তার পরেও সরকার তাদের গ্রেপ্তার করেনি, মামলা করেনি, তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। কথা বলার বিষয়ে পৃথিবীর কোথাও এতো স্বাধীনতা নেই। তাহলে তাদের কণ্ঠরোধ করা হলো কীভাবে।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এ বিষয়ে যে মন্তব্য করেছে তা অযৌক্তিক এবং মনগড়া।

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন এবং তারিখ প্রসঙ্গে ড. কামাল হোসেনের বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনের তারিখ ঠিক করেছে নির্বাচন কমিশন। এখানে সরকার কীভাবে অন্যায় করল।

নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তাদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অবিলম্বে তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় শৃঙ্খলা কমিটি তাদের চাপ প্রয়োগ করবে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের বিষয়ে।

সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হা‌নিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন না‌ছিম, সাংগঠ‌নিক সম্পাদক আহমদ হো‌সেন, অ্যাড‌ভো‌কেট আফজাল হো‌সেন, সাখাওয়াত হো‌সেন শ‌ফিক, কৃ‌ষি বিষয়ক সম্পাদক ফ‌রিদুন্নাহার লাইলী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সংস্কৃ‌তি সম্পাদক অসীম কুমার উ‌কিল, দফতর সম্পাদক ব্যা‌রিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ‌বিজ্ঞান ও প্রযু‌ক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্র‌কৌশলী আবদুস সবুর, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সু‌জিত রায় নন্দীসহ অনেকে উপ‌স্থিত ছি‌লেন।

এদিকে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে তারা এ কর্মসূচি শুরু করেন। একই দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। সংগঠনটির নেতারা কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে তারিখ পরিবর্তনে বাধ্য করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করায় এর আগে মঙ্গলবার ও বুধবার শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়ে অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন আন্দোলনকারীরা। পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবারের এই কর্মসূচিতে ২০০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

আন্দোলনের সমন্বয়ক জগন্নাথ হল সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস বলেন, পূজা ও নির্বাচন একইসাথে হতে পারে না। আমরা সাধারণ মানুষকে ভোগান্তিতে না ফেলে অহিংস আন্দোলন শুরু করেছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আপনার নূন্যতম বিবেকবোধ নেই। যারা পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে তাদের পদে থাকার কোনও অধিকার নেই।

আরএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত