ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:৫১

প্রিন্ট

মহাসড়কে টোল আদায় কেনো, প্রশ্ন মোশাররফের

মহাসড়কে টোল আদায় কেনো, প্রশ্ন মোশাররফের
নিজস্ব প্রতিবেদক

জনগণের টাকায় নির্মিত মহাসড়কে টোল আদায় করা হবে কেনো বলে সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্বাধীনতা ফোরাম আয়োজিত এক অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি একথা বলেন।

মহাসড়কের টোল আদায়ের সিদ্ধান্তের বিষয়ে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, জনগণের টাকায় নির্মিত সড়কে জনগণ চলাচল করবে। সেখানে কেন তারা (সরকার) টোল আদায় করবে। আর সড়কে যেসব গাড়ি চলে সব গাড়িইতো সরকারকে ট্যাক্স দেয়। বিদেশে বিভিন্ন সংস্থা রাস্তা নির্মাণ করে, তারা টোল আদায় করে সেই টাকা তুলে নেয়। কিন্তু আমাদের দেশের মহাসড়কগুলোতো জনগণের টাকায় বানানো হয়। তাহলে টোল আদায় করবে কেন?

তিনি বলেন, আমরা শুনতে পাচ্ছি যে, কোনো ক্ষেত্রে এই সরকারের নিয়ন্ত্রণ নাই। অর্থনৈতিক, আইনের শাসন, বিভিন্ন প্রজেক্টসহ কোনো ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ নাই। যদি থাকতো তাহলে বালিশ ও পর্দার মতো দুর্নীতি হতে পারে না। আর এই দুর্নীতির পরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজে বলেছেন, বালিশ ও পর্দা এগুলোতে ছিচকে। একথার মাধ্যমে তিনি স্বীকার করেছেন এর থেকে বড় বড় দুর্নীতি সরকার করছে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মোশাররফ বলেন, আজকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমরা আইনীভাবে লড়াই করছি। আর স্বাভাবিকভাবে এসব মামলায় ৭দিনের মধ্যে জামিন হওয়ার কথা। কিন্তু তা হচ্ছে না। তাই তার মুক্তির জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে।

বিএনপির এই স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, আমরা আমাদের দল পুনর্গঠনের জন্য জেলা-উপজেলায় কাউন্সিল করতে চাচ্ছি। কিন্তু আমাদের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। গতকাল বৃহস্পতিবার ছাত্রদলের কাউন্সিল আদালতের নির্দেশে স্থগিত করা হয়েছে। এতে বুঝা যায় যে, এদেশে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া নাই। আমরা আমাদের দল ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া চালু করতে চেষ্টা করছি। সেই চেষ্টাকেও আজকে সরকার নানাভাবে বাধাগ্রস্ত করছে।

স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ওলামা দলের সভাপতি মাওলানা শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

কেএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত