ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ৯ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩১ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:৪৬

প্রিন্ট

‘দেশে নাৎসিবাদী শাসন আত্মপ্রকাশ করেছে’

‘দেশে নাৎসিবাদী শাসন আত্মপ্রকাশ করেছে’
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে নাৎসিবাদী শাসন এখন নগ্নরুপে আত্মপ্রকাশ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীকে গতকাল তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘মামলায় বলা হয়েছে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে হুমকি দিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন, তাই তাকে সাজা দেওয়া হয়েছে। জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে গত মাসের শেষ সপ্তাহে চার্জ গঠনের জন্য তারিখ নির্ধারিত ছিল। ঐ তারিখে গিয়াস কাদের চৌধুরী সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন থাকায় সময়ের আবেদন করা হয়। চার্জগঠনের জন্য ১ম তারিখেই সময়ের আবেদন নামঞ্জুর করে ওয়ারেন্ট দেয়া হয় এবং মামলায় চার্জ গঠন করে সাক্ষীর জন্য তারিখ ধার্য রাখা হয়। গত পরশু দিন ছিল সাক্ষীর জন্য ১ম তারিখ। ঐদিনই আদালতে ৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। মাত্র ২০ মিনিটে ৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেয়ার পরদিনই ৩০/১০/১৯ ইং তারিখে রায় প্রচারের জন্য দিন ধার্য রাখা হয়। এটা একটা নজীরবিহীন ঘটনা। বিচারকের এই রায় পূর্বপরিকল্পিত ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’

রিজভী আরো বলেন, ‘বিচারক সাজা দেওয়ার জন্য অধিক উৎসাহিত হয়ে দ্রুত বিচারকার্য শেষ করেছেন। শুধুমাত্র রাজনৈতিক কারনেই গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীকে সাজা দেয়া হয়েছে। মিথ্যা সাজানো মামলায় আদালতকে ব্যবহার করে সাজা দেওয়ায় আবারো প্রমাণিত হলো-দেশে নাৎসিবাদী শাসন এখন নগ্নরুপে আত্মপ্রকাশ করেছে। কারণ ভিন্ন মতকে কোনভাবেই সহ্য করতে পারছে না এই সরকার। বিরোধী দলের রাজনৈতিক বক্তব্যের কারণে শাস্তির নোটিশ হাতে নিয়ে বসে আছে আওয়ামী সরকারের আদালত। সরকারের সমালোচনাকে এখন অপরাধ হিসেবে গন্য করা হচ্ছে। নাৎসি দুঃশাসনের আত্মা এখন আওয়ামী সরকারের ওপর ভর করেছে। এ রায় একদলীয় নব্য বাকশালেরই বহিঃপ্রকাশ।’

তিনি বলেন, ‘আমি এ রায়ের তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করছি। অবিলম্বে ফরমায়েশি কারাদণ্ডাদেশ বাতিল করে গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর মুক্তি দাবি করছি।’

রিজভী বলেন, ‘বেড়েই চলছে পিঁয়াজের দাম। বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় এ পণ্যটির দাম সব রেকর্ড ভেঙেছে। দুর্নীতি ও ভুলনীতি সরকারের নীতি হওয়ার কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আকাশ ছুঁয়েছে। সরকারের সিন্ডিকেটের কারণেই পিঁয়াজের দাম অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। অবিলম্বে পিঁয়াজের দাম সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে আনতে হবে।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘বিএসএমএমইউ’র পরিচালক বলেছেন বেগম জিয়া প্রস্তুত নিতে নিতে ২টা আড়াইটা বেজে যায়, অনেক সময় ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় চিকিৎসকদের। পরিচালকের বক্তব্য সত্যের অপলাপ। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে এটি শুধু ডাহা মিথ্যাচারই নয়, সাবেক প্রধানমন্ত্রীর অসুস্থতা নিয়ে একটি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের পরিচালক সরকারের পঙ্কিল রাজনৈতিক আবর্তের মধ্যে ঢুকে পড়বেন এটি কেউ প্রত্যাশা করেনি। পিজির পরিচালক সাবেক প্রধানমন্ত্রীর অসুস্থতা নিয়ে অসৌজন্যমূলক বক্তব্য রেখেছেন।’

রিজভী বলেন, ‘এক দুর্বিষহ অসুস্থার মধ্যে বেগম জিয়া দিনযাপন করছেন। তার কোন চিকিৎসাই হচ্ছে না। পরিচালক প্রেস কনফারেন্স করে প্রমাণ করলেন যে, বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ। পচিালকের বক্তব্যে মনে হয়েছে পিজিতে বেগম জিয়ার সঠিক চিকিৎসা হবে না। তার জীবন নিয়ে যে ছিনিমিনি চলছে সেটি পরিচালকের বক্তব্যের মধ্যেই নিহিত রয়েছে। একটা নীল নকশা অনুযায়ী যে বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে তাচ্ছিল্য করা হচ্ছে-এটার প্রমান-তিনি বলেছেন, জীবন-মৃত্যু নিয়ে আমাদের কিছু করার নেই। এই বক্তব্য বিএনপি নেতাকর্মীসহ দেশবাসীর মধ্যে ভয়াবহ আশংকা ও উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে। আমি অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএস/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত