ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২১:১৯

প্রিন্ট

ফ্র্যাঞ্চাইজি ইস্যুতে কঠোর হচ্ছে বিসিবি!

ফ্র্যাঞ্চাইজি ইস্যুতে কঠোর হচ্ছে বিসিবি!
ফাইল ছবি

স্পোর্টস ডেস্ক

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) খেলতে ছুটি চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। ফলে তাকে পাওয়া যাবে না শ্রীলংঙ্কা সিরিজে। এছাড়া আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরেও টাইগাররা পাচ্ছে না সাকিবের সার্ভিস। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে এরিমধ্যে মাসহ যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে উড়াল দিয়েছেন সাকিব।

এদিকে আইপিএলে নাম লেখানো আরেক ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমানও যদি ছুটি চান, তাকেও ছুটি দেয়া হবে বলে জানিয়েছে বিসিবি বস নাজমুল হাসান পাপন। ক্রিকেটারদের আজ (সোমবার) আলোচনায় বসেছিলেন কর্মকর্তারা। যেখানে ফ্র্যাঞ্চাইজি ইস্যুতে বেশ কঠোর বার্তা-ই পাওয়া গেলো।

আলোচনা শেষে সভাপতি বলেছেন, ভবিষ্যতে যিনিই জাতীয় দলের বাইরে অন্য কোথাও খেলতে চাইবেন, তাকে খেলতে দেয়া হবে। আমরা চাই সকলে খেলুক, কিন্তু কারও যদি জাতীয় দলের চেয়ে অন্য কোথাও খেলতে ভালো লাগে, তারা কোনো বাধা ছাড়াই যেতে পারে। এই বার্তাটা সবার জন্য। শুধু সাকিবের জন্য না।

নাজমুল হাসানের সোজা কথা, জাতীয় দলের দায়িত্ব ফেলে অন্য কোনো লিগের হয়ে যিনিই খেলতে চান না কেন, তাঁকে খেলার সুযোগ দেওয়া হবে। এভাবে খেলোয়াড়দের দাবি মেনে ছুটি দিতে বাধ্য হওয়ার মানে ক্রিকেটারদের কাছে বোর্ড জিম্মি কি না এমন প্রশ্নের মুখে বলেছেন, ‘এটা একেবারে অস্বীকার করার পথ নেই। এটা যে এর আগেও হয়নি, তা না। একটা ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত, কাউকে জোর করে কোথাও পাঠাব না। যে খেলতে চায় না, সে খেলবে না। ’

আর এ জন্য আসন্ন চুক্তিতে কিছু বিষয়ে পরিবর্তন আনতে চাইছে বিসিবি। ভবিষ্যতে ক্রিকেটারদের চুক্তির সময়ই জানিয়ে রাখতে হবে তারা জাতীয় দলে খেলবেন নাকি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলবেন।

এ বিষয়ে বিসিবি বস বলেন ‘আমরা তাদের সঙ্গে একটি চুক্তিতে যাব এখন। এ বছর আমরা কোনো চুক্তি করিনি। আমাদের যে চুক্তি শেষ হয়েছে আমরা এখনো তা নবায়ন করিনি। এই চুক্তিতে এখন নতুন কিছু জিনিস যোগ হবে। কে কোন ফরম্যাট খেলতে চায়, তাদের বলতে হবে। তাদের অন্য কোনো জায়গায় (ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ) কিছু থাকলে জাতীয় দলে খেলবে নাকি ওইখানে খেলবে, এটাও জানাতে হবে।’

পাপন বলেন, ‘এই চুক্তিতে যারা স্বাক্ষর করবে তাদের আমরা যেতে দেব না। এখন ব্যাপারটা খোলামেলা। আগে ছিল সেটা ব্যক্তিগত, এখন এটা আমরা কাগজে কলমে লিখিতভাবে নিয়ে নিচ্ছি। এখানে কারও বলার কিছু থাকবে না। দিল না, বা জোর করে নিচ্ছি—এটা বলার কিছু থাকবে না। যে খেলবে না, সে খেলবে না।’

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত