ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:৩৬

প্রিন্ট

চরাঞ্চলে মটরশুঁটি চাষে ঝুঁকছে চাষীরা

চরাঞ্চলে মটরশুঁটি চাষে ঝুঁকছে চাষীরা

রায়পুর লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

চরাঞ্চলে মটর-শুঁটি চাষে ঝুঁকছে রায়পুরের চাষীরা। রায়পুরে উত্তর,দক্ষিণ চরবংশী, ইউনিয়ন চরইন্দুরিয়া, চরঘাসিয়া, চরমেঘা, চর কাছিয়া,কানিবগাসহ উপজেলার এসব চরাঞ্চলে মটরশুঁটির চাষ করে চরের কৃষকরা।

মটরশুঁটি একটি জনপ্রিয় শিম প্রজাতির শীতকালীন সবজি । মটরশুঁটি বিভিন্নভাবে খাওয়া যায় । যেমন কাঁচা খাওয়া যায়, শুকিয়ে বীজ ডাল হিসেবে খাওয়া, ভেজে খাওয়া যায়, মটর শুটি শাক হিসেবে ও খাওয়া যায়। এটি একটি সুস্বাদু ও পুষ্টিকর সবজি। মটরশুঁটি উদ্ভিজ্জ আমিষের একটি উৎকৃষ্ট উৎস।

আজকাল পারিবারিক অনুষ্ঠানের বিশেষ রান্নার আয়োজনে ও পরিপক্ক মটরশুটি ডাল হিসেবে গ্রাম বাংলায় অত্যন্ত জনপ্রিয়। গো খাদ্য হিসেবে ব্যবহারকরা যায়। উৎপাদন খরচ খুব কম, বীজ ফেলার পর সামান্য সার ও নিড়ানি দিলেই হয়। কানি প্রতি ২৫-৩০ মণ ডাল পাওয়া যায় । খরচ কম হওয়ার কারণে অনেক কৃষক মটরশুটি চাষেঝুঁকছে।

রায়পুরের আয়তন ২শ ২ বর্গ কি.মি এবং ১০ ইউনিয়ন ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। প্রায় রায়পুরের সব ইউনিয়নে কৃষি এলাকা রয়েছে। বর্তমানে অল্প পরিসরে চাষাবাদ হচ্ছে। এ ফসল উৎপাদনে খরচ কম পড়ে। কিন্তু এখন আর আগের মত সবাই চাষ করে না। উপজেলা কৃষি জানায় ২৯৪ ১৪৯হেক্টর জমিতে মটর শুঁটির চাষাবাদ হয়। সরকারি ভাবে কৃষকদেরকে মটরশুঁটি আবাদ করার জন্য প্রশিক্ষণ, প্রণোদনা ও উৎসাহ দিলে হারিয়ে যাওয়া এ ফসলের আবাদে সবাই আগ্রহী হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত