ঢাকা, বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ৬ মাঘ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ২৩:০৪

প্রিন্ট

ছাত্রীনিবাস থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

ছাত্রীনিবাস থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
ফাইল ছবি

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে মৌমিতা খাতুন (২৬) নামের এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের দক্ষিণ বড়াগাছা এলাকার মৃদুলা ছাত্রীনিবাসের তিন তলার একটি কক্ষ থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৌমিতা সিংড়া উপজেলার ডাহিয়া ইউনিয়নের আয়াশ গ্রামের মাহাবুবুর রহমানের মেয়ে এবংবড়াইগ্রামের বনপাড়া ফজিলাতুননেসা মুজিব অনার্স কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্রী। সে মৃদুলা ছাত্রী নিবাসের তিন তলার একটি একটি কক্ষে থাকতো এবং ওই ছাত্রী নিবাসে থেকে পড়ালেখা করত।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ছাত্রীনিবাসের অন্য ছাত্রীরা মৌমিতাকে দেখতে না পেয়ে দুপুরের দিকে তার কক্ষের সামনে গিয়ে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ দেখতে পায়। কৌতুহল বশত তারা দরজার ফুটো দিয়ে তাকালে তার ঝুলন্ত মৃরদেহ দেখতে পায়। এসময় ছাত্রীরা ছাত্রীনিবাসের মালিককে বিষয়টি জানায়। ঘটনাটি পুলিশকেও জানানোর হয়।

পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে দরজা কেটে ভিতরে ঢুকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ প্রসঙ্গে নাটোর সদর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল মতিন বলেন, ছাত্রীর মৃতদেহ কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না। তাই প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলেই ধারণা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এসময় ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মৌমিতার বাবা মো. মাহবুবুর রহমান জানান, তার মেয়ে শহরের রানী ভবানী সরকারি মহিলা কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে বনপাড়ায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা অনার্স কলেজে সম্মানে পড়ালেখা করতেন। গতবার সম্মান শেষ বর্ষে পরীক্ষা দিয়ে অকৃতকার্য হওয়ায় এবার আবার পরীক্ষা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এর মধ্যে তার বিয়ে হয়। কিন্তু স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ায় তিনি বাবার বাড়িতে তেমন একটা থাকতেন না।

আরো পড়ুন: নাটোরের ৪৬ রাজাকারের তালিকা

আরো পড়ুন: দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত নাটোর রাজবাড়ি

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত