ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৫৬

প্রিন্ট

বড় সুখবর দিলেন ডিপিই’র মহাপরিচালক

বড় সুখবর দিলেন ডিপিই’র মহাপরিচালক
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাথমিকের ৩২ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে অক্টোবর মাসেই। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সোহেল আহমেদ শনিবার বাংলাদেশ জার্নালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আবেদনকারীদের পরীক্ষা খুব দ্রুত আয়োজন করা হবে। আগামী বছরের জুন মাসের মধ্যে এ নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।’

জানা যায়, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পত্রিকা এবং ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। এসব পদে চাকরিপ্রত্যাশীদের অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এক্ষেত্রে কারিগরি সহায়তা দেবে টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড। এরই মধ্যে কোম্পানিটির সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

অধিদপ্তর সূত্র জানায়, এবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শূন্যপদে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এসব পদের মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক স্তরের জন্য ২৫ হাজার ৬৩০ জন এবং প্রাথমিক স্তরের জন্য সহকারী শিক্ষক হিসেবে ৬ হাজার ৯৪৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। সারাদেশে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকের শূন্যপদ এবং গত জুন মাস থেকে এখন পর্যন্ত সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়েছে এসব পদের বিপরীতে নিয়োগ দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই সর্বশেষ সহকারী শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। তখন প্রায় ২৪ লাখ চাকরীপ্রত্যাশী এ পদে আবেদন করেন। পরবর্তীতে ৫৫ হাজার ২৯৫ জন উত্তীর্ণ হন। নিয়োগ দেয়া হয় ১৮ হাজার ১৪৭ জনকে।

আবেদনকারীর যোগ্যতা:

সহকারী শিক্ষক পদে পুরুষ ও নারী উভয়ের ক্ষেত্রেই শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক করা হয়েছে। কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএসহ স্নাতক বা অনার্স অথবা সমমানের ডিগ্রি হতে হবে।

বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ থেকে ৩০ বছর। তবে নারী প্রার্থীদের জন্য ৬০ শতাংশ কোটা বহাল থাকবে। ২০ শতাংশ পোষ্য কোটা ও বাকি ২০ শতাংশ পুরুষ প্রার্থীদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিষয়ে পাস করা প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। যদি ২০ শতাংশ কোটা পূরণ না হয়, তবে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত