ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:৩০

প্রিন্ট

কিমের অপ্রত্যাশিত ক্ষমাপ্রার্থনায় তোলপাড়

কিমের অপ্রত্যাশিত ক্ষমাপ্রার্থনায় তোলপাড়
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কোরিয়া দীপপুঞ্জে সীমান্তে একজনকে গুলি করা হত্যা করে লাশ পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। তবে হত্যার দায় স্বীকার করে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়ায় নতুন করে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। ক্ষমা চেয়ে কিম জং উন এ ধরণের অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটা উচিত হয়নি বলে মন্তব্য করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কোরীয় উপদ্বীপে। তবে চমক দিয়ে, এই অপ্রীতিকর ঘটনার জন্য এবার ক্ষমা চাইলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন এর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন কিম জং উন, এমনই দাবি সিওলের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। আর কোরিয়ার কিমের এই ব্যবহারে চমকে গিয়েছে আন্তর্জাতিক মহল।

দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্ত পেরিয়ে উত্তরে পালানোর চেষ্টা করছিলেন ৪৭ বছরের এক ব্যক্তি। তবে উত্তরের জলসীমায় ধরা পড়ে যান তিনি। সীমান্তে সেনাকে 'শ্যুট টু কিল' অর্থাৎ দেখামাত্রই গুলি করার অনুমতি আগেই দিয়ে রেখেছিলেন কিম জং উন। সেই মতো ওই ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করে উত্তর কোরিয়ার সেনা। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই হইচই শুরু হয় দক্ষিণ কোরিয়ায়। প্রাথমিক ভাবে পিয়ংইয়ংয়ের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি।

তবে প্রথমবারের মতো উত্তর কোরিয় এ নেতার ক্ষমা চাওয়ার খবর সামনে আসে। দক্ষিণ কোরিয়াকে পাঠানো তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয় নিহত ব্যাক্তিকে ১০ টি গুলি করা হয়। আটক হওয়ার পর নিজের পরিচয় দিতে ব্যর্থ হয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল বলে জানানো হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার পক্ষ থেকে এ হত্যাকে দুঃখজনক অভিহিত করে এ ঘটনা সহ্য করা হবে বলে হুঁশিয়ারী দেওয়া হয়। এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয় সরকার।

আরো পড়ুন: হত্যা-লাশ পোড়ানোর অভিযোগে দুই কোরিয়ায় উত্তেজনা

বাংলদেশ জার্নাল/নকি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত