ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ১৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ অক্টোবর ২০২০, ১৮:০৭

প্রিন্ট

সহজে পাকা তালের রস আহরণ পদ্ধতি

সহজে পাকা তালের রস আহরণ পদ্ধতি
জীবন-শিল্প ডেস্ক

চলছে পাকা তালের মৌসুম। বাজারেও তাই পাওয়া যাচ্ছে তাল। আগস্ট মাস থেকে তাল পাকতে শুরু করে এবং অক্টোবর মাস পর্যন্ত পাকা তাল পাওয়া যায়। গুণে ভরা মৌসুমি এই ফলটি অনেকেরই প্রিয়। তালের পিঠা খেতে খুবই সুস্বাদু। পিঠা ছাড়াও পায়েস, পুডিং কিংবা কেক বানিয়ে ফেলা যায় তালের রস দিয়ে।

তাল থেকে রস বের করা বেশ কষ্টসাধ্য বিষয়। তবে এর খুব সহজ সমাধান আছে। জেনে নিন কীভাবে সহজে পাকা তাল থেকে রস আহরণ করা যায়-

রস সংগ্রহের জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ: পাকা তাল, চাকু, হ্যান্ড গ্লাভস, ডিস, পরিষ্কার বিশুদ্ধ পানি, সিলভারের পাতিল ও ছাকনি রিফ্রেক্ট্রোমিটার ইত্যাদি।

রস আহরণ পদ্ধতি: সাধারণত ভাদ্র আশ্বিন মাসে তাল গাছ থেকে পাকা তাল হারভেস্ট করা হয়। এই পাকা তালকে চাকু দিয়ে ভালো করে ছিলে উহার আটিগুলো বিচ্ছিন্ন করা হয়। ১ লিটার বিশুদ্ধ পরিষ্কার পানিতে আটিগুলোর একটি একটি করে পাত্রের পানিতে হাত দিয়ে চিবিয়ে রস বের করতে হয়। এভাবে প্রতিটি আটির রস পানি মিশ্রিত পাত্রে বের করতে হয়।

পরবর্তীতে পানি মিশ্রিত পাকা রস চুলায় জ্বাল দিয়ে ঘনীভূত করা হয়। রস জ্বাল দিতে প্রয়োজনীয় সময় ১৫-২০ মিনিট। প্রথমে পানি মিশ্রিত রসের ব্রিক্স দেখা হয়। এই পানি মিশ্রিত রসের ব্রিক্স সাধারণত ৫-৬%। কিন্তু জ্বাল দেয়ার পর ঘনীভূত রসের ব্রিক্স পাওয়া গিয়েছে ১৪-১৫%।

প্রতিটি তালে ৩টি আটি থাকে। উক্ত ৩টি আটির ঘনীভূত রস থেকে বেশ সুমিষ্ট গন্ধ বের হয়। উক্ত ঘনীভূত রসের সাথে চিনি মিশিয়ে রসের চিনির ঘনত্ব বাড়িয়ে দুধ ভাত খাওয়া যায়। এছাড়া ঘনীভূত রস দিয়ে রুটি, তালের মুখরোচক পিঠা, বড়া প্রভৃতি তৈরি করা যায়। এই পাকা তাল বিক্রির মাধ্যমে পল্লী জনসাধারণের আর্থিক উন্নতির পাশাপাশি বিদেশে রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব এবং দেশে কর্মসংস্থান এর ব্যাপক সুযোগও সম্ভব।

চাইলে তালের রস সংরক্ষণ করতে পারেন বছর-জুড়ে। একটি মুখবন্ধ বাটিতে রস ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন তালের রস। যখন ইচ্ছে বের করে বানিয়ে খান পিঠা কিংবা পায়েস।

লেখক: কৃষিবিদ মোঃ. আবুল কালাম আল আজাদ

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত