ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৩৫

প্রিন্ট

পারু পারভীন-এর একগুচ্ছ কবিতা

পারু পারভীন-এর একগুচ্ছ কবিতা

জার্নাল ডেস্ক

কলঙ্ক

লুকিয়ে চুরিয়ে

চাঁদের ঠোঁটে ঠোঁট

ছোঁয়াতে যাই..

চাঁদ বলে হায়!

জোয়ার ভাটার দায়।

আয় কাছে আয়..

কোন কবি আজ

বড় সে বল

কলঙ্ক ছাড়াই?

কত্তো দূরে চাঁদ! উদ্বাহু বাড়াই।

সকল ভুলে কার্নিশে দাঁড়াই।

ভাত

কত আর খাবে ভাত?

আমার যে সাদাভাত রাঁধতে রাঁধতে

চুলে পাক ধরলো।

কত আর ঘুমাবে?

তোমার সাথে ঘুমাতে ঘুমাতে

ভুলে গেছি সঙ্গমের স্বাদ!

কত আর পরিছন্ন করবে জীবন? গলির এঁটো গন্ধে যখন জীবন জেরবার।

অরণ্যে রোদন

কখন যে চায়ের পানি চাপাতে চাপাতে নিজেই ফুটতে থাকি চুলোর ওপর।

কাপড় গুলো শুকাতে দেয়ার সময় একা একা ঝুলে পড়ি কষ্টের দড়িতে।

মাছ কুটতে যেয়ে বারবার কেটে ফেলি আঙ্গুল।

কিছুতে চেষ্টা করেও ভাগ্য বদলাতে পারিনা রাতারাতি রঙিন হতে পারি না বসন্তের মত।

অথচ আমার পাশে বসেই সেজেছে সেই ঋতু। তাকে ঘিরে কত নাগরিক ফুর্তি।

চেয়ে চেয়ে দেখি আমার মত বাটনা বাটতে যাওয়া রমনীরা কিভাবে নিজেকে পিষে ফেলছে।

জাবর কাটতে কাটতে চোয়ালের দাঁতগুলো

হারিয়ে যায় অথচ থামেনা।

ক্রমেই বাড়ে অরণ্যে রোদন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত