ঢাকা, শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬ অাপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:১৩

প্রিন্ট

প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভুলের মাশুল কেনো শিক্ষকদের দিতে হবে?

প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভুলের মাশুল কেনো শিক্ষকদের দিতে হবে?
তাপস সাহা

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি সারাদেশে প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষক সুপারিশ করে। কিন্তু তাদের মধ্যে অনেক সুপারিশপ্রাপ্ত শিক্ষকই যোগদান করতে পারেননি প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ভুলের কারণে।

যেমন, কোনো প্রতিষ্ঠানে একজন শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক লাগবে অর্থাৎ ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ কিন্তু প্রতিষ্ঠান প্রধান চাহিদা দেয়ার সময় ভুলে করে ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ এর জায়গায় ফিজিক্যাল সাইন্স অর্থাৎ ভৌত বিজ্ঞান দিয়ে দিয়েছে। আবার কেউ কেউ করেছে উল্টোটা যেমন ফিজিক্যাল সাইন্সের বদলে ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ দিয়ে দিয়েছেন। এছাড়াও আরো সমস্যা আছে যেমন একটি পদে দুই বা ততোধিক প্রার্থী সুপারিশ, মহিলা প্রার্থীর বদলে পুরুষ প্রার্থী সুপারিশ এবং প্যাটার্ন বহির্ভুত শিক্ষক সুপারিশ।

এখন সুপারিশপ্রাপ্তরা যখন যোগদান করতে যাবে তখনই দেখা দিচ্ছে এই সমস্যাগুলো আর প্রতিষ্ঠান প্রধানরা তাদের ভুল হয়েছে বলে সুপারিশপ্রাপ্তদের ফিরিয়ে দিচ্ছে, অবশ্য এই প্রার্থীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওইসব প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বিরুদ্ধে এনটিআরসিএ কঠোর ব্যবস্থাও গ্রহণ করেছে। কিন্তু সুপারিশপ্রাপ্তদের মনে এখন প্রশ্ন যোগদান না করা এই শিক্ষকদের কি হবে?

প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ভুলে দায় ভার কেন তারা নিবে? তারা এখন চরম হতাশার মধ্যে দিনযাপন করছে। আর প্রতিষ্ঠান প্রধানদের কয়েকদফা সময় দেয়া হয়েছিলো ভুল সংশোধন করার জন্য কিন্তু তারা তা করেনি। প্রতিষ্ঠানপ্রধানরা যদি একটা চাহিদাই ঠিকমত দিতে না পারে তাহলে তারা এতবড় একটা প্রতিষ্ঠান কিভাবে পরিচালনা করবে, আর এর দায় কিন্তু উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও জেলা শিক্ষা অফিসারও এড়াতে পারে না কারন চাহিদা দেয়ার পর ওই দুই অফিসারই তাদের আইডি দিয়ে একবার চেক করেন। তাই ভুক্তভোগীদের এখন একটাই দাবি কর্তৃপক্ষ যেন তাদেরকে দ্রুতই অন্য কোন প্রতিষ্ঠানে সুপারিশ করেন এবং এই সমস্যা সমাধানে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close