ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ১৬ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১২ নভেম্বর ২০২০, ১৭:০৪

প্রিন্ট

ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত যেভাবে দেখছেন পাঠকরা

ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত যেভাবে দেখছেন পাঠকরা

জার্নাল ডেস্ক

করোনা মহামারির কারণে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আগামী ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর পরই এ বিষয়ে নিজেদের মতামত জানাতে শুরু করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে মন্ত্রণালয়ের ঘোষণার পর অনেকে পোস্ট করেছেন। কেউ কেউ আবার বিভিন্ন পোস্টে মন্তব্য করেও নিজেদের মতামত জানিয়েছেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানোর বিষয়ে পাঠকদের মন্তব্য জানতে চেয়েছিল বাংলাদেশ জার্নাল। এর জবাবে অনেক পাঠক নিজেদের মতামত তুলে ধরেন। অনেকে সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানালেও কেউ কেউ আবার দ্বিমত পোষণ করেছেন।

আবারো বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি, বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন?- বাংলাদেশ জার্নালের এমন প্রশ্নের জবাবে আবির রহমান সেলিম নামের একজন মন্তব্য করেছেন, ‘সরকার ভালো কাজ করছে’।

সোহাগ আহমেদ যুগপোযোগী সিদ্ধান্তের জন্য শিক্ষামন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান, তিনি বলেন, ‘সময়পোযোগী সঠিক সিদ্ধান্ত, করোনা শীতকালীন সেকেন্ড ওয়েভ, ধন্যবাদ মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী!’

কিন্তু এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন তারান্নুম জাহান। তিনি বলেন, ‘খুব খারাপ ভাবে দেখি, ছেলে মেয়েদের ভবিষ্যত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে’।

মাহদী হাসান মেহেদী বলেন, ‘আমাদের দেশের বর্তমান শিক্ষা ব্যাবস্থা করোনার চেয়েও ভয়ংকর। করোনা শতকরা ২/৩ জনের প্রাণ নিচ্ছে, কিন্তু আমাদের এই শিক্ষা ব্যাবস্থা একটা শিক্ষিত জাতি ধ্বংস করে দিচ্ছে। অনেক স্বপ্ন ছিল, সব শেষ হয়ে যাচ্ছে। হয়তো ফেরা হবে না আর প্রাণের শিক্ষাঙ্গনে, আজ মনে পড়ে যায় বন্ধুদের সাথে কাটানো ক্যাম্পাসের সেই দিনগুলি।’

শাফায়াত হোসাইন বলেন, ‘দুঃখজনক, নিরাশ হয়ে যাচ্ছি’। তবে, হাসিবুল ইসলাম রিপন বলেন, ‘সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত’।

প্রসঙ্গত, কওমি মাদ্রাসা বাদে অন্যসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা ছিল। সেই সময় শেষ হওয়ার দু’দিন আগে আরও এক দফা ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা এল।

আরো পড়ুন: আবারো বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবং আগামী বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখে ১৪ নভেম্বরের পর সীমিত পরিসরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হতে বলে আভাস দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে এবার পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনী পরীক্ষা এবং মাধ্যমিক স্তরের বার্ষিক পরীক্ষা নেবে না সরকার। আর অষ্টমের সমাপনী এবং এসএসসি ও সমমানের ফলফলের ভিত্তিতে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

অন্যরা যা পড়ছে:

> শিক্ষক নিবন্ধনের পরীক্ষায় পাস ১৪ দশমিক ৪৮ শতাংশ

> জবির সেই তিথি সরকার গ্রেপ্তার

> ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল দেখবেন যেভাবে

> চারুকলা ইউনিট বাতিল নয়, ভর্তি বিশেষ ব্যবস্থায়

> অনলাইন ক্লাসের বাইরে ৩৭ শতাংশ শিক্ষার্থী

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত