ঢাকা, রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৮ মার্চ ২০২১, ১৮:৩৩

প্রিন্ট

ড. কামাল গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কাজ করেছেন

ড. কামাল গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কাজ করেছেন
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

শফিককে উল্ল্যাহকে দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়ে গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কাজ করেছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে গণফোরামের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য মোহাম্মদ মুহসিন রশীদ এই কথা বলেন।

বিবৃতিতে মোহাম্মদ মুহসিন রশীদ বলেন, গত ৬ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত একটি সংবাদ সম্মেলনে গণফোরামের সভাপতি এক প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন যে, অনেকেই চলে গেছে গণফোরাম থেকে, কেন চলে গেছে তিনি তা জানেন না। এই কথাটি ঠিক নয়। সাম্প্রতিককালে গণফোরাম থেকে কেউ চলে যায়নি। গণফোরামের সভাপতি তার পাশে থাকা গুটিকয়েক লোক মোকাব্বির খান, মোশতাক, শফিক উল্ল্যাহ, জানে আলমদের কু পরামর্শ ও প্ররোচনায় গণফোরামের মূলধারা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসাবে শফিক উল্ল্যাহকে দায়িত্ব দিয়েছেন উল্লেখ করে রশীদ বলেন, গণফোরামের গঠনতন্ত্রে সভাপতির এমন কোন ক্ষমতা নেই। গণফোরামের যে নির্বাচিত কমিটি, প্রেসিডিয়াম, স্থায়ী কমিটি, কেন্দ্রীয় কমিটি, ৫ জন নির্বাহী সভাপতি- এই সবগুলো সভাপতি তার গঠনতন্ত্র বহির্ভূত আদেশে বাতিল করে নিজের ও সাধারণ সম্পাদকের পদ বহাল রেখে গঠনতন্ত্র বহির্ভূত একটি এডহক কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করেন। তিনি এই সকল গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কর্মকাণ্ড করেছেন মোকাব্বির খান, শফিক উল্ল্যাহ ও মোশতাকের পরামর্শে।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রেসক্লাবে গণফোরামের একটি বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় একটি স্টিয়ারিং কমিটি, নির্বাহী কমিটি, ২০১ সদস্য বিশিষ্ট ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের লক্ষে ৩০১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সকল কমিটিতেই মোকাব্বির খান, মোশতাক, শফিক উল্ল্যাহ, জানে আলম ও সেলিম আকবর অন্তর্ভুক্ত আছেন বিধায় গণফোরাম ঐক্যবদ্ধ আছে।

মুহসিন রশীদ বলেন, গণফোরাম ঐক্যবদ্ধ ছিল, আছে ও থাকবে। সাম্প্রতিক সময়ে দলের ভেতর যে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে তা জাতীয় কাউন্সিলের মাধ্যমে অচিরে দূর হবে। আশা করছি, গণফোরামের সভাপতি বর্তমান সৃষ্ট অস্থিরতার দায়-দায়িত্ব স্বীকার করে তা নিরসনে দৃঢ় পদক্ষেপ নিবেন।

কেএস/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত