ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : ২২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৩ মার্চ ২০২০, ১৬:০১

প্রিন্ট

এক নজরে জার্মানির ১৬ রাজ্য

এক নজরে জার্মানির ১৬ রাজ্য
জার্মানির প্রাচীন বূর্জ ঈলৎজ ক্যাসেল জার্মানির এলজ্ দুর্গ এক সেরা সংরক্ষণ ও তার পাশাপাশি জার্মানির সবচেয়ে সুন্দর দুর্গ। ছবি: সংগৃহীত

Evaly

ফিচার ডেস্ক

জার্মানি ইউরোপের শিল্পোন্নত অন্যতম একটি দেশ। এটি ১৬টি রাজ্য নিয়ে গঠিত একটি সংযুক্ত ইউনিয়ন। এটির উত্তর সীমান্তে উত্তর সাগর, ডেনমার্ক ও বাল্টিক সাগর, পূর্বে পোল্যান্ড ও চেক প্রজাতন্ত্র, দক্ষিণে অস্ট্রিয়া ও সুইজারল্যান্ড এবং পশ্চিম সীমান্তে ফ্রান্স, লুক্সেমবুর্গ, বেলজিয়াম এবং নেদারল্যান্ড্‌স অবস্থিত।

জার্মানির ইতিহাস জটিল এবং এর সংস্কৃতি সমৃদ্ধ, তবে ১৮৭১ সালের আগে এটি কোনো একক রাষ্ট্র ছিলো না। ১৮১৫ থেকে ১৮৬৭ পর্যন্ত জার্মানি একটি কনফেডারেসি এবং ১৮০৬ সালের আগে এটি অনেকগুলি স্বতন্ত্র ও আলাদা রাজ্যের সমষ্টি ছিল।

এক শতকে দুই বিশ্বযুদ্ধ, নাৎসিবাদের উত্থান, দুই ভাগে ভাগ হয়ে যাওয়ার কয়েক দশক পর পুনরেকত্রীকরণ, নানা উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে গিয়েছে জার্মানি। এখন ইউরোপের নেতৃত্বে থাকা দেশটিতে রয়েছে ১৬টি রাজ্য।

আয়তনের দিক থেকে জার্মানি ইউরোপের ৭ম বৃহত্তম রাষ্ট্র। উত্তর উত্তর সাগর ও বাল্টিক সাগরের উপকূলীয় নিম্নভূমি থেকে মধ্যভাগের ঢেউ খেলানো পাহাড় ও নদী উপত্যকা এবং তারও দক্ষিণে ঘন অরণ্যাবৃত পর্বত ও বরফাবৃত আল্পস পর্বতমালা দেশটির ভূ-প্রকৃতিকে বৈচিত্র্যময় করেছে। দেশটির মধ্য দিয়ে ইউরোপের অনেকগুলি প্রধান প্রধান নদী যেমন রাইন, দানিউব, এলবে প্রবাহিত হয়েছে এবং দেশটিকে একটি বাণিজ্যিক কেন্দ্রে পরিণত করতে সাহায্য করেছে।

এক নজরে জার্মানির ১৬ রাজ্য

বাডেন-ভ্যুর্টেমব্যার্গ: দক্ষিণ-পশ্চিম জার্মানির এ রাজ্যটিতে ফ্রান্স এবং সুজারল্যান্ডের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে। সুবিশাল ব্ল্যাক ফরেস্ট এবং হাইডেলবার্গ দুর্গের ধ্বংসাবশেষ দেখতে অনেকের পছন্দ এই রাজ্য। রাজ্যের রাজধানী স্টুটগার্ট।

বাভারিয়া: জার্মানির সবচেয়ে বড় রাজ্য বাভারিয়ার রাজধানী মিউনিখ। দেশটির ভূখণ্ডের প্রায় পাঁচ ভাগের এক ভাগ জুড়ে এ রাজ্য। জার্মানির অন্য সব অঞ্চলের তুলনায় বাভারিয়ার সংস্কৃতি বেশ আলাদা, এমনকি ভাষাও৷ আল্পসের সৌন্দর্য দেখতে, বিয়ার পানের উৎসব অক্টোবরফেস্ট দেখতে বাভারিয়া আসতেই হবে।

বার্লিন: জার্মানির রাজধানী বার্লিন৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর পশ্চিম ও পূর্বে ভাগ করা হয় জার্মানি। বার্লিন ওয়ালের মাধ্যমে ভাগ হয় বার্লিনও। কিন্তু বহু সংস্কৃতির সংমিশ্রণে এখন বার্লিনকে মনে করা হয় জার্মানির সবচেয়ে পরিবর্তনশীল এলাকা হিসেবে। রাজধানী হিসেবে বার্লিন পেয়েছে রাজ্যের মর্যাদা।

ব্রান্ডেনবুর্গ: রাজধানী বার্লিনকে ঘিরে অবস্থিত ব্রান্ডেনবুর্গ রাজ্য। বেশ কিছু চোখ ধাঁধানো প্রাসাদ, রোমান সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ছড়িয়ে রয়েছে এ রাজ্য জুড়ে। ব্রান্ডেনবুর্গের রাজধানী পটসডাম।

ব্রেমেন: জার্মানির সবচেয়ে ছোট রাজ্য ব্রেমেন। জনসংখ্যার দিক দিয়েও সবচেয়ে ছোট এটি। তবে ঐতিহ্যের দিক দিয়ে অন্য কোনো রাজ্যের চেয়ে কম নয় এটি। মাত্র দুটি শহর রয়েছে রাজ্যটিতে- ব্রেমেন এবং ব্রেমারহাভেন।

হামবুর্গ: উত্তর জার্মানির এই শহরটিও পেয়েছে রাজ্যের মর্যাদা। শুধু বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাই নয়, স্ক্যান্ডিনেভিয়ায় ও নর্ডিক দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে বেশ বড় ভূমিকা রাখে এই বন্দরনগরীটি।

হেসে: হেসে রাজ্যের রাজধানী ভিসবাডেন। রাজ্যের সবচেয়ে বড় শহর ফ্রাঙ্কফুর্ট। জার্মান সাহিত্যিক ইয়োহান ভল্ফগাঙ ফন গ্যোয়েটের জন্ম এই শহরেই।

লোয়ার সাক্সনি: নর্থ সি বা উত্তর সাগরের পাড়ে অবস্থিত এই রাজ্য৷ রাজ্যটির রাজধানী হানোফার। ছড়িয়ে থাকা সমুদ্রসৈকতের কারণেই অনেক জার্মানের কাছে ছুটি কাটানোর জন্য এই রাজ্যটি পছন্দের।

মেকলেবুর্গ-ওয়েস্টার্ন পমেরানিয়া: বাল্টিক সাগরের পাড়ে অবস্থিত এ রাজ্যটির রাজধানী শ্ভেরিন। রাজ্যটির সাগরপাড়ে এত বেশি রিসোর্ট রয়েছে, মজা করে রাজ্যটিকে মাঝেমধ্যে বার্লিনের বাথটাবও বলা হয়।

নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়া: নানা সংস্কৃতির সফল সম্মীলন ঘটেছে এ রাজ্যে। এ রাজ্যের রাজধানী ড্যুসেলডর্ফ। বিভক্ত জার্মানিতে পশ্চিম জার্মানির রাজধানী বন শহরও এই রাজ্যেই অবস্থিত।

রাইনলান্ড-পালাটিনেট: প্রতিবেশী তিন দেশ বেলজিয়াম, ফ্রান্স ও লুক্সেমবার্গের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে এ রাজ্যের। রাজ্যটির রাজধানী মাইনৎস। জার্মানির সবচেয়ে বড় ওয়াইন প্রস্তুতকারক অঞ্চলগুলোর অন্যতম এটি।

সারলান্ড: রাজ্যটির মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া সার নদীর নাম অনুসারে নামকরণ হয়েছে এ রাজ্যের৷ লুক্সেমবার্গ ও ফ্রান্সের সঙ্গে সীমান্তে এ রাজ্য অবস্থিত৷ ফরাসি ও জার্মান সংস্কৃতির মিলন ঘটেছে এ রাজ্যে। এর রাজধানীর নাম সারব্র্যুকেন।

শ্লেভিগ-হোলশ্টাইন: ডেনমার্ক রাজ্যে অবস্থিত জার্মানির এ রাজ্য। রাজ্যটির দুই পাশে রয়েছে দুই সাগর- একদিকে উত্তর সাগর, অন্যদিকে বাল্টিক সাগর। এ রাজ্যের রাজধানী কিল।

সাক্সনি-আনহাল্ট: এ রাজ্যের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে রয়েছে ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্য। এক রোমান সম্রাটের সমাধি, প্রাচীন দুর্গ ও প্রাসাদ এবং মার্টিন লুথারের জন্মস্থানও এই রাজ্যে।

সাক্সনি: সাক্সনি-আনহাল্ট রাজ্যের পাশেই অবস্থিত সাক্সনি রাজ্য। পূর্ব জার্মানির এ রাজ্যটি বিভক্ত জার্মানির সমাজতান্ত্রিক অংশে ছিল। পোল্যান্ডের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে এ রাজ্যটির, রাজধানী ড্রেসডেন।

ঠুরিঙ্গিয়া: ভার্টবুর্গ, ভাইমার, গ্যোটে, গ্রোপিয়াসসহ নানা বিখ্যাত জার্মানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে পূর্ব জার্মানির রাজ্য ঠুরিঙ্গিয়ার নাম। রাজ্যের রাজধানীর নাম এরফুর্ট।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

shopno
  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
best