ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫ অাপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:০১

প্রিন্ট

যে কারণে শিশুদের বই পড়া গুরুত্বপূর্ণ

যে কারণে শিশুদের বই পড়া গুরুত্বপূর্ণ
জার্নাল ডেস্ক

অনেক মা-বাবা তাদের সন্তানের বই পড়াকে তেমন গুরুত্ব দেন না। অনেকেই ভাবেন বয়স বাড়লেই সন্তান বই পড়বে। কিন্তু এমন ভাবনা ঠিক নয়। শিশুকে দিনে অন্তত ১৫ মিনিট বই পড়ে শোনানো উচিত। এতে শিশুরা মানসিকভাবে শক্ত হয়ে ওঠে।

শিশুদের মনোবল বাড়ায়

শিশুরা বই পড়লে বা কেউ পড়ে শোনালে শিশুদের সিদ্ধান্ত নেয়ার মনোবল বাড়ে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

১৫ মিনিটই যথেষ্ট

জরিপ থেকে জানা যায়, জার্মানিতে তিন বছর বয়স পর্যন্ত শতকরা মাত্র ২৮ ভাগ শিশুকে বই পড়ে শোনানো হয়। শিশুর বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলার জন্য দিনে মাত্র ১৫ মিনিট সময়ই যথেষ্ট বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞ লুকাস হেইমান।

অনভূতির আদান-প্রদান

শিশুকে সাথে নিয়ে বই পড়ে শোনালে সে প্রয়োজনীয় বইগুলো সহজে পড়তে পারে। বই পড়ার অভ্যাসের কারণে শিশু অন্যদের সাথে অনুভূতির আদান-প্রদানও সহজে করতে পারে।

১০ মাস বয়সেই থেকেই বই

মাত্র ১০ মাস বয়সেই শিশুর হাতে কাপড়ের তৈরি ছবির বই দিয়ে দিন। তারপর ধীরে ধীরে বয়স অনুযায়ী অন্যান্য রূপকথা বা পশু-পাখি কিংবা শিশুর উপযোগী যে কোনো বই দিন। শিশুকে সাথে নিয়ে বই কিনুন।

শিশুর আগ্রহকে গুরুত্ব দিন

কোনো শিশু যদি একই বইয়ের গল্প বারবার শুনতে চায়, এতে মা-বাবা বিরক্ত হবার কিছু নেই, বরং এই আগ্রহকে শিশুর জন্য ইতিবাচক বলেই মনে করেন মনে করেন হেইমান।

আরএ/ রূপকথার বই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close
close