ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : ১২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৫১

প্রিন্ট

করোনা থেকে বাঁচতে বাড়িতে গিয়ে বন্ধুর হাতে খুন

করোনা থেকে বাঁচতে বাড়িতে গিয়ে বন্ধুর হাতে খুন
প্রতীকী ছবি

Evaly

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

করোনা থেকে বাঁচতে ছুটিতে বাড়িতে গিয়ে টাকা লেনদেন নিয়ে বিরোধের জের ধরে বন্ধুর হাতে শামীম হোসেন (১৮) নামে এক মাদ্রাসাছাত্র খুন হয়েছে। ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ ইউপির পারকুন্ডা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বুধবার দিবাগত রাতে বাড়ির পাশে একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শামীম হোসেন ঢাকা ফুলবাড়িয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র। সে পারকুন্ডা দীঘিয়া গ্রামের শামসুল আলমের ছেলে।

পুলিশ জানায়, নিহত শামীম করোনার ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফেরে এবং ঘাতক হাসান আলীও শহরের মাদরাসা হতে বাড়ি ফেরে।তাদের মধ্যে ৯ হাজার টাকা নিয়ে একটি বিরোধ ছিল।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাতে শামীম নেকমরদ বাজারে বেড়াতে আসলেও আর বাড়ি ফেরেনি। পরিজনরা অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেলেও রাত ১১টায় শামীমের মরদেহ বাড়ির পাশে ভুট্টা ক্ষেত ক্ষেতে দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ তারই বন্ধু হাসান আলীকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলে জানায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রানীশংকৈল থানর ওসি (তদন্ত) খায়রুল আলম ডন।

হাসান আলী একই এলাকার মৃত নুর মোহাম্মদ চোথা মিয়ার ছেলে। সে ঠাকুরগাঁও শহরের গোয়ালপাড়া হাফেজিয়া মাদরাসায় লেখাপড়া করে।

রাণীশংকৈল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খায়রুল আনাম ডন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকায় পুলিশ হাসান আলী নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। সে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিলে বৃহস্পতিবার ম্যাজিষ্ট্রেটের কাছে স্বীকারোক্তি দেয়। তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত