ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:০৪

প্রিন্ট

স্থানীয়রা বানালো বাঁধ, ডিসি লাগালেন গাছ

স্থানীয়রা বানালো বাঁধ, ডিসি লাগালেন গাছ
লালমনিরহাট প্রতিনিধি

তিস্তা নদীর ভাঙন ও বন্যা রোধে নিজেদের উদ্যোগে লালমনিরটের কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়নের শৌলমারী চরের জামিরবাড়ী এলাকায় ৫০০ মিটার বাঁধ নির্মাণ করে স্থানীয়রা। সেই বাঁধটি স্থায়ী করতে বৃক্ষরোপণ করেছেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক।

শনিবার বিকালে বাঁধটির দু’পাশে বৃক্ষরোপণ করেন ডিসি আবু জাফরু।

স্থানীয়রা জানায়, তিস্তায় প্রতি বছর বন্যায় ও ভাঙনে নদী তীরের বাসিন্দাদের ফসলসহ বসত-বাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়। এ বছরও জামিরবাড়ী এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়। পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) লালমনিরহাট কার্যালয় থেকে সেখানে বাঁধ করে দেয়ার কথা থাকলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

এদিকে বর্ষা আসার আগেই ৫০০ মিটার দীর্ঘ বালুর বাঁধ নির্মাণ করে গ্রামবাসী। বাঁধটি স্থায়ী করতে পাশেই একটি সড়ক নির্মাণ ও বৃক্ষ রোপনের দাবি জানায় গ্রামবাসী। এলাকাবাসীর সেই দাবি পূরণে বাঁধটি স্থায়ী করতে বৃক্ষরোপণের উদ্যোগ নেন ডিসি আবু জাফর।

শনিবার স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে নিজে উপস্থিত থেকে ওই বাঁধের দু’পাশে বিভিন্ন ফলজ ও বনজ গাছের প্রায় এক হাজার চারা রোপণ করেন।

জামিরবাড়ী এলাকার সুফিয়ান রহমান জানান, গ্রামটিকে রক্ষায় বাঁধ নির্মাণে পাউবোকে একাধিকবার বলা হয়েছে। তারা কোনো উদ্যোগ না নেয়ায় গ্রামবাসী মিলে বালু ফেলে বাঁধটি নির্মাণ করে।

ডিসি আবু জাফর বলেন, গ্রামবাসীর নিজের উদ্যোগে বালু ফেলে নির্মাণ করা তিস্তার ওই বাঁধে গাছ লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়া সেখানে পাকা সড়কও করে দেয়া হবে। রোপণ করা গাছগুলো বেঁচে গেলে তিস্তার বাঁধটিও রক্ষা পাবে। শুধু বাঁধ নয়, রক্ষা পাবে অনেকগুলো গ্রাম। এজন্য রোপণ করা গাছের চারাগুলোর যত্ন নিতে গ্রামবাসীর প্রতি আহ্বানও জানিয়েছি।

এ সময় ডিসির সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহাঙ্গীর হোসাইন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আহমেদসহ স্থানীয়রা।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত