ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭ আপডেট : ২৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৫:২১

প্রিন্ট

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা, শ্বশুর আটক

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা, শ্বশুর আটক
ছবি: সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী তানিয়া আক্তার

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের বাহুবলে সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী তানিয়া আক্তার (২২) কে ধর্ষণের পর হত্যায় বাহুবল মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন নিহতের মা রুনা আক্তার।বুধবার রাতে দেবর জানে আলমকে প্রধান আসামি করে শ্বশুর-শাশুড়ি, ননদসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন তিনি।

মামলা দায়েরের পর র‌্যাব অভিযান চালিয়ে বুধবার মধ্যরাতে উপজেলার ফদ্রখলা গ্রাম থেকে মামলার দুই নং আসামি শ্বশুর হারুনুর রশিদকে গ্রেপ্তার করেছে।

প্রসঙ্গত, সুন্দরী ভাবির প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে দেবর জানে আলমের। জানে আলম দুই সন্তানের পিতা। তার কু নজর পড়ে সুন্দরী বড় ভাইয়ের স্ত্রী তানিয়ার প্রতি। তানিয়াকে প্রায়ই সে উত্যক্ত করতো। তানিয়া শ্বশুর শাশুড়ি কে বিষয়টি বার বার জানালেও তারা কোন কর্ণপাত করেনি। জানে আলমের স্ত্রীকেও বিষয়টি জানায় তানিয়া। এ নিয়ে জানে আলমের সাথে তার স্ত্রীর ঝগড়াও হয়। স্ত্রী নিষেধ করলেও তার নিষেধ মানেনি জানে আলম। এক পর্যায়ে জানে আলমের ঘর ছাড়ে তার স্ত্রী। বিষয়টি ছড়িয়ে পরে পুরো গ্রামে।

এদিকে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে জানে আলম। বিচার দেয়ায় প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে উঠে সে। রোববার দিবাগত রাতে দরজার লক ভেঙ্গে তানিয়ার রুমে প্রবেশ করে তানিয়াকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে জানে আলম। এক পর্যায়ে তানিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয়।

বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ কামরুজ্জামান মামলা দায়েরের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত