ঢাকা, রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ৩১ মে ২০১৯, ০১:০১

প্রিন্ট

পরিবেশ দূষণে বিপর্যস্ত সাভার

পরিবেশ দূষণে বিপর্যস্ত সাভার
জাহাঙ্গীর হোসেন সাগর

সাভারে দিন দিন পরিবেশ দূষণের হার বেড়েই চলেছে। শিল্প-কারখানার সাথে বাড়ি-ঘরের বর্জ্যও বাড়াচ্ছে এ দূষণের মাত্রা। পরিবেশবাদীদের অভিযোগ, এক্ষেত্রে তেমন কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায় না পরিবেশ অধিদপ্তরেকে।

তথ্য মতে, ছোট-বড় মিলিয়ে সাভারে প্রায় সহস্রাধিক কলকারখানায় কয়েক লাখ মানুষ কাজ করছে। কারখানাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে নতুন নতুন আবাসন। দ্রুত কারখানা বৃদ্ধি এবং এ অঞ্চলে মানুষের বসবাসের বেড়ে যাওয়ায় বাড়ছে দূষণ। আর কারখানাগুলির নিঃসৃত বর্জ্যের কারণে নদী-নালা-খাল-বিল সহ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে দূষণ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এই বর্জ্যের কারণে এই এলাকায় বর্তমানে বসবাস করা দূর্বিষহ হয়ে পড়েছে। এমন ভয়াবহ গন্ধ যার ফলে নারী-শিশু সহ সকলের শ্বাস নিতেও কষ্ট হয়।

শুধু শিল্প-কারখানার বর্জ্য নয়, বাণিজ্যিক, গৃহস্থালী ও মেডিকেল বর্জ্যেও বাড়ছে দূষণের হার। পাশাপাশি নষ্ট হচ্ছে কৃষিজমি।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, এ অঞ্চলের জমিতে এই দূষিত পানির কারণে কোনো ফসলই হয় না। এমনকি এই জমিতে বাস করার জন্য ঘর বানালে সেখানের টিন পর্যন্ত নষ্ট হয়ে যায়।

জাবি’র ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আলমগীর হোসেন ভুইঁয়া জানান, সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর যদি তাদের ‘রুলস’ গুলি ‘স্ট্রিক্টলি ইমপোজ’ করতো ইন্ডাস্ট্রির উপরে, তাহলে আমি মনে করি ইন্ডাস্ট্রি গুলির সাহস ছিল না এ ধরণের ‘এক্টিভিটি’তে যাওয়ার।

নদী ও পরিবেশ উন্নয়ন পরিষদ, সাভার এর সহ-সভাপতি খন্দকার এম হামিদ রঞ্জু বলেন, আমরা বিভিন্ন জায়গায় মানববন্ধন করেছি, মিছিল করেছি, আজ পর্যন্ত পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এব্যাপারে তেমন কোনো কার্যক্রম ও পদক্ষেপ নিতে দেখিনি।

তবে উপজেলা প্রশাসনের বক্তব্য হলো- সবসময় এই বর্জ্য ব্যবস্থাপনার দিকটি তারা তদারকি করছেন। তবে তাদের অগোচরে দৃষ্টি বহির্ভূতভাবে কোনো অনিয়ম ঘটে থাকে, বিষয়টি জানতে পারলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা তারা নিয়ে থাকেন।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত