ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ২২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:১৯

প্রিন্ট

পূজায় নখে আনুন নতুনত্বের ছোঁয়া

পূজায় নখে আনুন নতুনত্বের ছোঁয়া
নিজস্ব প্রতিবেদক

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের পূণ্যলগ্ন ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। একইসঙ্গে দেশের বিভিন্ন মন্দিরে দেবী দুর্গার আগমনী বার্তায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে উৎসবের আমেজও শুরু হয়ে গেছে। অনেকেই পূজার জন্য নানা আয়োজনও শেষ করে ফেলেছেন। আবার অনেকেই আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

শাড়ি, চুড়ি, মালা, খোঁপা সব আয়োজনের সঙ্গে হাতের মেহেদির কথাও নিশ্চই ভুলে যাননি!

কিন্তু হাতের এবং পায়ের সৌন্দর্য বাড়ায় যে নখ, তার কী করলেন?

সেই পুরনো ফ্যাশনের এক রঙা নেইল পলিশ, এই তো?

না! এবার পূজাতে নখের ডিজাইনে একটু ভিন্নতা নিয়ে আসুন। মনের মাধুরী দিয়ে করে ফেলুন নেইল আর্ট।

নখ যেন হয়ে উঠেছে একটা ক্যানভাস। তাতে লাগছে নানা রঙের ছোঁয়া। নখ রাঙাতে নেইলপলিশ তো ছিলই। এখন যেন নখশিল্পের (নেইল আর্ট) যুগ। তাতেও যোগ হচ্ছে নতুন এক ধারা। এর নাম অ্যাক্রিলিক নেইল, বিশ্বজুড়ে এখন বেশ জনপ্রিয় এই নখের সাজ।

তবে নখ রাঙানোর আগে এবং পরে বেশ কিছু বিষয় লক্ষ্য রাখতে হয়, অবলম্বন করতে হয় কিছু কৌশল-

নখের শেপ

নখ রাঙানোর আগে অবশ্যই নখের শেপ ঠিক করে নিন। নখ বেশি বড় হলে শেপ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই নেল পলিশ দেয়ার আগে নখের শেপ ঠিক করে নিন। আপনার আঙ্গুলের আকার অনুযায়ী মানানসই শেপে কেটে নিন।

যেমন হবে নখের সাজ

নেইল আর্ট করার সময় অনেকেই বুঝতে পারেন কোন ধরনের স্টাইল তারা অনুসরণ করবেন। আপনি অনায়াসে লেটেস্ট ট্রেন্ড ফলো করতে পারেন। সাহায্য পাবেন নেল আৰ্ট পার্লারগুলো থেকেও। তবে ক্রিয়েটিভিটির কোনো সীমা থাকে না। তাই নিজের পছন্দমতোও নেইল আর্ট করতে পারেন। যেমন পছন্দসই ফল, ফুল বা কোনো কার্টুন চরিত্র আপনার নখে পেইন্ট করে নিতে পারেন, আবার রাইনস্টোন, ক্রিস্টাল বা স্টাড বসিয়ে ঝলমলে নেইল আর্টও করতে পারেন।

তবে মনে রাখবেন, যত বেশি জটিল শিল্প নখে করবেন, ঠিক ততটাই আপনার পকেট হালকা হবে। যেমন গ্রাফিক নেলস, প্রিজম নেলস, মিরর নেলস, মারমেড নেলস বা মার্বেল রক নেলস করালে বেশ ভালো খরচ পড়বে।

পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে নেইল পলিস

পোশাকের সঙ্গে মিলিয়েও বেছে নিতে পারেন নেইল পলিশের রঙ। এছাড়া লাল-নীল, সাদা-কালো, সোনালী-ধূসর, সবুজ-কমলা, বেগুনি-গোলাপি এভাবে দুটি করে রঙ একনখে লাগালে সুন্দর লাগবে। ফ্রেঞ্চ পলিশে সাধারণত নখের আগায় সাদা রঙ ব্যবহার করা হয়। যেখানে ভিন্নতা আনার জন্য গাঢ় রঙও ব্যবহার করতে পারেন। কাপ্তান, লেগিংস, টপস বা পশ্চিমা স্টাইলের পোশাকের সঙ্গে নখের সাজ বেশ মানানসই।

টিপস

১. রাত্রে ঘুমানোর আগে হাতে লোশন লাগান। যথেষ্ট আর্দ্রতা না পেলে নখ ভেঙে যাবে এবং নখ বাড়বেও না।

২. যেহেতু আপনি পেশাদার নেইল আর্টিস্ট নন, তাই কাঁচি দিয়ে কিউটিকল কাটতে যাবেন না। বরং কিউটিকল রিমুভার ব্যবহার করুন।

৩. তিন সপ্তাহের বেশি কোনো নেইল পলিশ নখে রাখবেন না। এতে নখ শুষ্ক হয়ে যাবে।

৪. যারা রান্নাঘরে কাজ করেন তাদের নখে অনেক সময় হালকা হলুদ ছোপ পড়ে যায়। তাই রান্নাঘরে কাজ শেষ করার পরই হাত ভালো করে ধুয়ে নেবেন। তার পর নখে বেশ খানিকটা পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নেবেন।

৫. হলুদ ছোপ তোলার আরো একটি ঘরোয়া উপায় হল- লেবুর রসে মিনিট দশেক নিজের হাতের আঙুল ডুবিয়ে বসে থাকা। তার পর হাত ধুয়ে ফেলুন। নখ অনেক পরিষ্কার হবে।

৬. পার্লারে যখনই ম্যানিকিওর করাবেন তখনই পছন্দসই ব্র্যান্ডের টপ কোট বেছে নিয়ে সেটা দু’বার লাগাবেন। দুটো কোট থাকলে আপনার নখ চট করে হলদেটে হবে না। তাছাড়া প্রথম কোটটির রং উঠে গেলেও আরো একটা স্তর থাকবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনআর/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত