ঢাকা, বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৪ মিনিট আগে

প্রকাশ : ২২ মার্চ ২০২১, ১৭:১০

প্রিন্ট

ভ্রমণের সঙ্গী রনির ‘ট্রাভেল বাংলাদেশ’

ভ্রমণের সঙ্গী রনির ‘ট্রাভেল বাংলাদেশ’
সংগৃহীত ছবি

ভ্রমণ ডেস্ক

‘এমন দেশটি কোথাও খুঁজে পাবে নাকো তুমি, সকল দেশের রাণী সে যে আমার জন্মভূমি’- কবির এই কথা যে সত্য তা আমরা যারা কিছুটা হলেও ভ্রমণপিপাসু আছি তারা ভালো করেই জানি। হ্যাঁ, ভ্রমণ। আপনার যদি দেশের নানা জানা অজানা স্থান ভ্রমণ করার নেশা থাকে কিংবা আপনি ভ্রমণ করবেন করবেন বলে ভাবছেন কিন্তু করা হয়ে উঠছে না। আপনি যখনই কোথাও ঘুরতে যাবেন, তার খোঁজ নিয়ে থাকেন গুগলে। কিন্তু গুগলের নানা তথ্য আপনাকে বিভ্রান্ত হওয়ার কবল থেকে মুক্তি দিতে আপনার পাশে রয়েছে ‘ট্রাভেল বাংলাদেশ’ (https://travelbd.xyz)।

ভ্রমণসম্পর্কিত জনপ্রিয় এই উদ্যোগের পেছনের মানুষ আহসান রনি সম্প্রীতি মুখোমুখি হয়েছেন বাংলাদেশ জার্নালেররাজিব সোহানের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত আড্ডায় জানিয়েছেন দেশিয় এই স্টাটাপের অজানা গল্প।

বাংলাদেশ জার্নাল: ট্রাভেল বাংলাদেশের উদ্যোগটা অন্য দশটি উদ্যোগের ছেয়ে আলাদা, এই বিষয়ে আগ্রহটা কীভাবে?

মানুষ আহসান রনি: আমার ভ্রমণের প্রতি ভালোবাসা তৈরি হয় অনেক ছোট থেকেই। দেশের আনাচে-কানাচে পরিবার, বন্ধুবান্ধব বা নিজে অনেক ঘুরে বেড়িয়েছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবার পর সামাজিক ও সাংগঠনিক নানা কাজে যুক্ত থাকার কারণে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক আয়োজনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ হয়। নেপাল, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়াতে গিয়ে বারবার লক্ষ করেছি যে, সেই দেশের ভ্রমণ নিয়ে কতো আয়োজন। একজন ট্রাভেলারকে সব ধরনের সহায়তা করার ব্যবস্থা রয়েছে সেখানে। অনলাইনেও আছে পর্যাপ্ত তথ্য; ফলে একজন ট্রাভেলারের তেমন সমস্যায় পড়তে হয় না। বাংলাদেশে বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে গিয়ে যখন তথ্যের ব্যাপক অপ্রতুলতা দেখেছি তখনই মনে হয়েছে যে এমন একটি প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশে দরকার যেখানে বাংলাদেশ নিয়ে পর্যাপ্ত তথ্য থাকবে। বাংলাদেশ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর। এর ঐতিহাসিক স্থানগুলিতে ভ্রমণকারীদের সংখ্যা প্রতি বছর দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে, ভ্রমণপিপাসুদের প্রয়োজন পূরণে সব ধরণের তথ্য সহ একটি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম তৈরিই আমাদের লক্ষ্য ছিলো। এটি দুর্ভাগ্যজনক যে এই দেশটিতে বিভিন্ন ধরণের সৌন্দর্যমণ্ডিত ঐতিহাসিক স্থান রয়েছে, খুব কম লোকই এগুলি সম্পর্কে জানে এবং যখন কেউ বেড়াতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, যথাযথ তথ্য এবং গাইডলাইনের অভাব বিষয়টিকে অনিশ্চিত করে তোলে এবং সম্ভাব্য ভ্রমণকারীদের নিরুৎসাহিত করে। ২০১৭ সালে একটি গ্রুপের মাধ্যমে এবং ২০১৮ সালে ওয়েবসাইট তৈরীর মাধ্যমে সেই প্রচেষ্টাটিই করেছি।

বাংলাদেশ জার্নাল: ট্রাভেল বাংলাদেশের ভেতরের সুবিধাগুলো শুনতে চাই

মানুষ আহসান রনি: আপনি যখনই কোথাও ঘুরতে যাবেন, তার খোঁজ নিয়ে থাকেন গুগলে। কিন্তু গুগলের নানা তথ্য আপনাকে বিভ্রান্ত হওয়ার কবল থেকে মুক্তি দিতে আপনার পাশে রয়েছে ‘ট্রাভেল বাংলাদেশ’। দেশের নানা জানা অজানা স্থান ভ্রমণের বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাবেন ট্রাভেল বাংলাদেশ ওয়েবসাইটে। তাদের বিশেষত্ব হলো এখানে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা পেজ। আপনি চাইলে প্রতিটি জেলা সম্পর্কে নির্দিষ্ট করে তথ্য খুঁজতে পারেন। প্রতিটি জেলার পেইজে গেলে দেখা মিলবে সেই জেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, উল্লেখযোগ্য খাবার, আবাসন, ভ্রমণ গল্প ও গুরুত্বপূর্ণ দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। সকল দর্শনীয় স্থানের প্রতিটি পাতায় আপনি পাবেন উক্ত স্থানের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট, সেখানকার উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য আর অবশ্যই সেখানে পৌঁছানোর জন্য বিস্তারিত দিকনির্দেশনা। আমরা শুধু ভ্রমণ করতে নয়, ভ্রমণের গল্প শুনতেও ভালোবাসি। ভ্রমণকে ঘিরেই নানান তথ্য দিয়ে সাজানো হয়েছে ট্রাভেল বাংলাদেশের পর্যটন নিউজের অংশটি। ট্যুর ম্যানেজমেন্টের আদ্যোপান্ত নিয়ে নানান সাম্প্রতিক খবর, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক নানা ভ্রমণ নিয়ে ফিচার, ফটো ফিচার, অ্যাভিয়েশন সম্পর্কিত খবর, নানা হোটেল ও রিসোর্ট সম্পর্কিত তথ্য, রেস্টুরেন্ট ও টুরিস্ট সেক্টরে চাকরির খবর, ট্যুরিজম, রেস্টুরেন্ট, কর্পোরেট সম্পর্কিত নানা খবর পেয়ে যাবেন ট্রাভেল বাংলাদেশের ‘পর্যটন নিউজে’। ভ্রমণ ফিচার। এই অংশে পেয়ে যাবেন ভ্রমণ পিপাসু নানা মানুষের অভিজ্ঞতার গল্প, দেশে ও দেশের বাওরে ভ্রমণের জন্য নানান ভ্রমণ টিপস, তারুণ্যের গল্প, এবং স্পেশাল ফিচার। প্রসঙ্গটা যখন ভ্রমণের, তখন অন্য দেশ ভ্রমণের কথা থাকবে না তা তো হতেই পারে না! বিভিন্ন দেশের ভিসার আবেদন সম্পর্কিত তথ্য, গুরুত্বপূর্ণ দর্শনীয় স্থান, খাবার, আবাসন ও রোমাঞ্চকর সব ভ্রমণ গল্প এখানে অপেক্ষা করছে আপনার জন্য। দারুণ দারুণ সব ট্রাভেল ডিলস, কীভাবে বাজেট ট্যুর দেবেন, কীভাবে ভ্রমণ করার জন্য বিস্তারিত পরিকল্পনা করবেন, বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে যেসব দেশে ভিসা ছাড়াই ভ্রমণ করতে পারবেন, সস্তায় বিমানের টিকিট কাটাসহ ভ্রমণ সম্পর্কিত সকল কিছুই একের ভেতর সব পাবেন আপনি ট্রাভেল বাংলাদেশ ওয়েবসাইটে।

বাংলাদেশ জার্নাল:ব্যক্তি আহসান রনি কতটুকু ভ্রমণপ্রেমী?

মানুষ আহসান রনি:আমি নিজে ব্যাপকভাবে ভ্রমণপ্রিয়। আগে আমি সাংবাদিকতার সাথে যুক্ত ছিলাম, বই লিখেছি, সামাজিক-সাংস্কৃতিক কাজে যুক্ত ছিলাম, বিভিন্ন কর্পোরেটের সাথেও কাজ করেছি। কিন্তু ভ্রমণ আমার সবসময় ভালোলাগার র‌্যাংকিংয়ে ১ নম্বরে ছিলো। দেশের নানা প্রান্তের ঘুরেছি; ৭টি দেশে গিয়েছি, ভারত কাছে হওয়ায় এবং কম খরচে যাওয়া যায় বিধায় অনেকবার ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে ঘুরতে গিয়েছি। ভ্রমণের প্রতি নতুন স্থান বা সংস্কৃতিকে দেখার আগ্রহ থেকেই। যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ দিকে চিন্তা করছিলাম ভবিষ্যতে কি করতে চাই। তখন ভ্রমণের বিষয়টিই মাথায় আসে। তখন চিন্তা করি ভ্রমণ ক্ষেত্রটিকেই পেশা হিসেবে নিতে চাই, কারণ তাহলে সারাজীবন ভ্রমণ নিয়েই কাজ করতে পারবো। তাই ভ্রমণের প্রতি ভালোলাগা-ভালোবাসা আমার ক্ষেত্রে অকল্পনীয়।

বাংলাদেশ জার্নাল: এই ৪ বছরে ট্রাভেল বাংলাদেশের যদি অর্জনের কথা আসে...

মানুষ আহসান রনি: ২০১৭ সালে ট্র্যাভেল বাংলাদেশের সূচনা হওয়ার পর থেকে, ভ্রমণ করার প্রতি অনুরাগ রয়েছে এমন মানুষের মধ্যে এটি একটি বিস্তৃত গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। মাত্র অল্প কয়েকজনের হাতে ধরে ট্র্যাভেল বাংলাদেশ যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে ২৪ জন নির্বাহী সদস্য এবং দক্ষ লেখক দ্বারা এটি পরিচালিত হয়ে থাকে, যা পর্যায়ক্রমে ভ্রমণ সম্পর্কিত তথ্যের জন্য শীর্ষস্থানীয় সর্বাধিক সন্ধানকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। তাদের সার্ভিসের মাধ্যমে প্রতি মাসে ৩ লাখেরও বেশি মানুষ সহায়তা পাচ্ছে। ট্রাভেল বাংলাদেশ ২০১৯ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইডিয়া প্রজেক্টের অধীনে স্টার্টাপ গ্র্যান্ড, সেরা স্টার্টাপ হিসেবে আইআইপিটি এওয়ার্ড এবং স্টার্টাপ ঢাকা ইউনিউবেটরের কর্তৃক সেরা স্টার্টাপ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

বাংলাদেশ জার্নাল: কেমন হতে চলছে আগামীর ট্রাভেল বাংলাদেশ?

মানুষ আহসান রনি: ট্রাভেল বাংলাদেশ ২৬ মার্চ থেকে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করছে। ট্যুর মার্কেট, এক্সপেরিয়েন্স নামে একদম নতুন বিষয় চালু করছে। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশের ট্রাভেল সেক্টরে একটি বিশাল পরিবর্তন নিয়ে আসবে ট্রাভেল বাংলাদেশ প্ল্যাটফর্মটি ও প্ল্যাটফর্মের নানা সার্ভিসগুলো। বাংলাদেশের ট্রাভেলারদের সকল সমস্যার সমাধানের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ট্রাভেল বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। আলটিমেট প্ল্যান হচ্ছে বাংলাদেশ থেকে শুরু হয়ে একটি আন্তর্জাতিক স্টার্টআপ তৈরী করা। যেটি সারা পৃথিবীর ট্রাভেলারদের একটি প্ল্যাটফর্ম হবে এবং সারা পৃথিবীর প্রতিটি কোণায় ছড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ থেকে শুরু হওয়া একটি উদ্যোগ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত