ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ২৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর ২০২০, ২০:০৫

প্রিন্ট

রাজধানীতে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ম্যুরাল উদ্বোধন

রাজধানীতে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ম্যুরাল উদ্বোধন
জার্নাল ডেস্ক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বর্ষে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাজধানীর ভাসানটেক সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে স্থাপিত হলো ‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’ শিরোনামে একটি ম্যুরাল।

শনিবার ম্যুরালটির উন্মোচন ও উদ্বোধন করেন ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক)।

মুজিব শতবর্ষে গৃহীত কলেজের বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে অন্যতম উদ্যোগ ছিলো বঙ্গবন্ধুর স্মারক স্মৃতি হিসেবে কলেজ প্রাঙ্গণে ম্যুরাল নির্মাণ।

ভাসানটেক সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহমুদা খাতুনের পরিকল্পনা, নির্দেশনা এবং তত্ত্বাবধানে ম্যুরাল নির্মাণ কার্যক্রমটি বাস্তবায়িত হয়েছে। ম্যুরালটির স্থপতি খ্যাতনামা ভাস্কর চৌধুরী জাহানারা পারভীন।

ম্যুরাল উন্মোচনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খ্যাতিমান অভিনেতা ও সংসদ সদস্য ফারুক খান পাঠান ‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’ উন্মোচনের মাধ্যমে বাংলাদেশের পরবর্তী প্রজন্মের কাছে মহান মুক্তিযুদ্ধ, বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার চেতনাকে সমুন্নত রাখার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে সবার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

এমন অসাধারণ ম্যুরাল নির্মাণের জন্য কলেজের অধ্যক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, এই ম্যুরাল আমাদের ইতিহাসের কথা বলে। বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলন থেকে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ধারক ও বাহক হয়ে উঠবে আশা করি। চর্চায়, মননে, আমরা যেন দেশপ্রেমিক জাতিতে পরিণত হতে পারি সেই চেষ্টাই করতে হবে।

ম্যুরাল উন্মোচন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভাসানটেক সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহমুদা খাতুন।

সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ একই সূত্রে গাঁথা। ছাত্রছাত্রীদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষে এই ম্যুরালটি নির্মিত হয়েছে। ম্যুরালে ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ বাঁকগুলোও চিহিৃত হরা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ বির্নিমাণে শিক্ষার্থীদের সঠিক জ্ঞানোর্জনের কোন বিকল্প নেই। আমরা শিক্ষার্থীদের সামনে বাংলাদেশের জন্মের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার উদ্দেশ্যে এই ম্যুরালে বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলন থেকে একাত্তরের বিজয়কাল পর্যন্ত জাতির জন্য বিভিন্ন গুরুত্ববহ সময় চিত্রিত করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাসানটেক সরকারি কলেজের শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. বজলুর রহমান রফিক। উপস্থিত ছিলেন ম্যুরালটির স্থপতি স্বনামখ্যাত ভাস্কর চৌধুরী জাহানারা পারভীন। ম্যুরাল উন্মোচন অনুষ্ঠানটির তত্ত্বাবধান করেন অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক ও ভাসানটেক সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক আতিয়া খন্দকার।

পরে কলেজের মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনাকালে বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও বাঙালির আত্মপরিচয়ের অনুসন্ধিৎসুদের চেতনা বিকাশে ম্যুরালটি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে আলোচকগণ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ম্যুরালটির উন্মোচন ও উদ্বোধন শেষে বঙ্গবন্ধু ও দেশপ্রেমমূলক কবিতা, গান পরিবেশনাসহ সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত সংখ্যক শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত