ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ১০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৪ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৮

প্রিন্ট

‘আওয়ামী লীগ নেতাদের মেরুদণ্ড কাগজের তৈরি’

‘আওয়ামী লীগ নেতাদের মেরুদণ্ড কাগজের তৈরি’
নিজস্ব প্রতিবেদক

‘বিএনপির মেরুদণ্ড নেই’ আওয়ামী লীগের নেতাদের এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আমি বলবো- আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মেরুদণ্ড নিউজ প্রিন্টের। যেমন সাদা কাগজের চেয়ে নিউজপ্রিন্ট ধরলেই ছিড়ে যায়। তেমনি আওয়ামী লীগ নেতাদের মানব মেরুদণ্ড নাই। কারণ তারা লোপাটকারী, দুর্নীতিবাজ সরকারকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে এক দোয়া মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

‘বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার সুস্থতা কামনায়’ এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ।

রিজভী বলেন, ‘আজকে দেশের অবস্থা বিপন্ন। দেশকে ভয়ঙ্কর অন্ধকারময় গুহার দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী গতকাল বলেছেন, বাবা-মা শিখিয়েছে ‘দেশকে কিভাবে ভালোবাসতে হয়’? কিন্তু এই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলেই ক্যাসিনোর খনি, জুয়া আর টাকার খনি তৈরি হয়েছে। ’

রিজভী আরো বলেন, ‘তারেক রহমান নাকি মালয়েশিয়ায় ফ্যাক্টরি তৈরি করেছেন। কই আপনি ১০ বছরেও তার প্রমাণ দিতে পারেননি। আপনি জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তারা আপনার কথায় বিভ্রান্ত হবেনা। আপনার নেতৃত্বে নয় লাখ কোটি টাকা পাচার হয়েছে। আপনার নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে টর্চার সেল গঠন করেছে হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে আওয়ামী লীগ নেই। কারণ আজকে যাকেই ক্যাসিনো বা অন্যান্য দুর্নীতিতে ধরা পড়ে তারা বলে আগে বিএনপি করতো। সুতরাং বিএনপি থেকে লোক গিয়ে আওয়ামী লীগ ভরে গেছে। এখন আওয়ামী লীগ আর কেউ করতে চায় না। যা তাদের বক্তব্যেই প্রমাণিত হয়।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘মিথ্যার বেসাতি করে কিছুদিন টিকে থাকা যায়। কিন্তু দীর্ঘদিন থাকা যাবেনা। সময় ঘনিয়ে এসেছে। যারা গণতন্ত্রের পক্ষে কথা বলেন, বাক স্বাধীনতার কথা বলে তাদেরকে এই সরকার আওয়ামী লীগের গুহার মধ্যে বন্দি রাখতে চায়। আজকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সেই পরিণতিই ভোগ করছেন। জনগণের সর্বাধিক প্রিয় নেত্রী গণতন্ত্রের প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে দস্যু দলের সরকারের কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। প্রত্যেকটি কারাগার আজকে আওয়ামী ডাকাত দলের গুহার মধ্যে পরিণত হয়েছে।’

সাদেক হোসেন খোকা প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, ‘আমাদের মাঝে খন্ডকালিক শিক্ষক, অ্যাডভোকেট আছে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ রাজনীতিবিদের অভাব। আর সাদেক হোসেন খোকা হলেন পূর্ণাঙ্গ রাজনীতিবিদ। যারা দেশের বিপদে সার্বভৌমত্ব রক্ষার স্বার্থে অন্ধকারের মধ্যেও ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে। আমি তার আশু সুস্থতা কামনা করছি। আল্লাহ তায়ালা যেন তাকে সুস্থ করে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেন।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এসএম জিলানীর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি নবী উল্লাহ নবী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহসভাপতি গোলাম সারোয়ার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএস/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত