ঢাকা, সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০৫

প্রিন্ট

ইহজীবন ও পরজীবন সম্বন্ধে কিছু হাদিস

ইহজীবন ও পরজীবন সম্বন্ধে কিছু হাদিস
জার্নাল ডেস্ক

ইহজীবন ও পরজীবনের মধ্যে অবিচ্ছেদ্য সম্বন্ধ রয়েছে। মৃত্যু মানুষকে এক অবস্থা থেকে অন্য অবস্থায় পৌঁছায়। ইহজীবনে যে ধার্মিক জীবন-যাপন করে, এখানেই সে বেহেশতের আভাস উপলব্ধি করে। যে পাপাসক্ত জীবন-যাপন করে সে এখানেই জাহান্নামের শাস্তির আভাস উপলব্ধি করে। ইহজীবনে কর্মযোগ ক্ষণস্থায়ী এবং পরজীবন ফলভোগ ও চিরস্থায়ী। ইহজীবনের সুখ-সম্পদ অনিশ্চিত। যে আল্লাহকে ভয় করে, তার জন্য পরজীবনই উত্তম।

ইহজীবন ও পরজীবন সম্বন্ধে কিছু হাদিস বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য নিচে তুলে ধরা হল-

১. হযরত মোসতাওরিদ বিন সাদ্দাদ (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন, আল্লাহর শপথ! আখিরাতের তুলনায় এ দুনিয়ার উপমা, তোমাদের কারো অঙ্গুলি সমুদ্রে ডুবালে তা যা নিয়ে ফিরে আসে তদ্রুপ।

২. হযরত আবু হোরায়রা (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল (সা) বলেছেন, অনিষ্টকারী ধন-দৌলত বা বিস্মরণকারী দারিদ্রতা, বা ধ্বংসকারী ব্যাধি বা জীর্ণ-বৃদ্ধ বয়স বা আগামী মৃত্যু বা দাজ্জাল বা কিয়ামত এ সকলের জন্য ছাড়া তোমাদের মধ্যে কোনো কোনো ব্যক্তি অন্য কিছুর জন্য অপেক্ষা করে না। (তিরমিজি)

৩. হযরত আমর বিন আউফ (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন, আল্লাহর শপথ, আমি তোমাদের জন্য দারিদ্রতার ভয় করি না। আমি ভয় করি, যেমন তোমাদের পূর্ববর্তীদের জন্য দুনিয়া প্রশস্ত হয়েছিলো, তেমন তোমাদের জন্যও তা প্রশস্ত হবে। তারা যেমন এর প্রতি আসক্ত হয়েছিলো, তোমরাও তেমনি আসক্ত হবে; তাদেরকে যেভাবে ধ্বংস করেছে, তোমাদেরকেও সেভাবে ধ্বংস করবে। (বোখারী, মুসলিম)

৪. হযরত মায়ায (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল (সা) বলেছেন, নিশ্চয় আল্লাহ ধর্মভীরু, স্বাধীনচেতা এবং আড়ম্বর-বিহীন বান্দাহকে ভালোবাসেন। (মুসলিম)

৫. হযরত ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত, রাসূল (সা) এক ব্যক্তিকে ঢেকুর দিতে শুনে বললেন, তোমার ঢেকুর সংক্ষেপ কর, কেননা কিয়ামতের দিন অধিক ক্ষুধার্ত হবে সেই ব্যক্তি যে দুনিয়াতে অধিক ভক্ষণ করে। (তিরমিজি)

৬. হযরত কায়াব বিন ইয়াজ (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল (সা) বলেছেন, প্রত্যেক কওমের জন্য একটি পরীক্ষা আছে এবং আমার উম্মতের জন্য পরীক্ষা ধন-সম্পত্তি। (তিরমিজি)

৭. উম্মুল আলা (রা) হতে বর্ণিত। রাসূল (স) বলেছেন, আল্লাহর শপথ! আমি আল্লাহর রাসূল হওয়া সত্ত্বেও আমি জানি না আমাকে এবং তোমাদেরকে কি করা হবে। (বোখারী)

হাদিসগুলো ‘বিষয় ভিত্তিক হাদীসে রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)’ বই থেকে সংগৃহিত।

আরও পড়ুন

ভুল করার পর ক্ষমা লাভের দোয়া

এক ওয়াক্ত নামাজেই ৯ পুরস্কার

রোগী দেখতে গিয়ে যে দোয়া পড়বেন

যে চার তাসবিহ আল্লাহর কাছে অধিক প্রিয়

ঘুম থেকে উঠে যে দোয়া পড়তে হয়

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত