ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৫ জুন ২০২০, ১৫:১১

প্রিন্ট

গুরু প্রয়াণের ৯ বছর, বিনম্র শ্রদ্ধা

গুরু প্রয়াণের ৯ বছর, বিনম্র শ্রদ্ধা
জার্নাল ডেস্ক

আজম খান ওরফে মোহাম্মদ মাহাবুবুল হক খান একজন মুক্তিযোদ্ধা ও জনপ্রিয় ব্যান্ডসঙ্গীত শিল্পী; যার সঙ্গে আমার আত্মিক পরিচয় সেই ১৯৮৯ সালে। ক্লাস টু বা থ্রিতে (সম্ভবত) থাকতে ‘রেললাইনের ওই বস্তিতে জন্মেছিল’ গানটি দিয়ে শুধু ব্যান্ড সঙ্গীত নয়, পুরো গানের জগতেই পরিচয় হয়েছিল আমার।

১৯৯৭ সালে কয়েকবার রিকশাযোগে কোচিং-এ যাওয়ার সময় আজিমপুর এলাকায় পপগুরুর সঙ্গে দেখা হলেও কথা হয়েছিল সামান্য-সাক্ষাৎ ও কথোপকথনের স্মৃতি বলতে এটুকুই। প্রয়াণের এই দিনে শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি। ওপারেও ভালো থাকবেন।

সময়ের পরিক্রমায় দেশাত্মবোধকসহ বাইরের কিছু গান শুনলেও সেই নব্বই দশক থেকেই উচ্চারণ, ওয়ারফেজ, মাইলস্, ফিডব্যাক, এলআরবি, আর্ক, সোলস, অবস্কিওর, চাইম, নোভা, মাকসুদ ও ঢাকা এবং চট্টগ্রামের শিল্পী আহমেদ রাজীবসহ বিভিন্ন ব্যান্ডের গানের সঙ্গে দিনানিপাত এখনও।

আজম খান একাধারে পপগুরু, অভিনেতা, ক্রিকেটার ও বিজ্ঞাপনের মডেল ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকায় সংঘটিত কয়েকটি গেরিলা অভিযানেও তিনি অংশ নিয়েছিলেন। তার প্রথম কনসার্ট প্রদর্শিত হয় বাংলাদেশ টেলিভিশনে ১৯৭২ সালে। সঙ্গীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার তাঁকে মরণোত্তর দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করে।

লেখাটি ফেসবুক থেকে সংগৃহীত

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
best