ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ২৭ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : ৯ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:৪৭

প্রিন্ট

মুজিববর্ষে সারাদেশের প্রাথমিকে নতুন উদ্যোগ

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর লেখা পড়বে কোটি শিক্ষার্থী

Evaly

জার্নাল ডেস্ক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লিখবেন একটি বিশেষ লেখা। বঙ্গবন্ধুর জীবন ও সংগ্রামের ওপর শিশুতোষ এই লেখা আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে পাঠ করবে সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়পড়ুয়া ১ কোটি ৪০ লাখ শিশু।

আরো পড়ুন: ১৭ মার্চ প্রাথমিকের জন্য বিশাল সুখবর​

আগামী ১৭ মার্চ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী তথা মুজিববর্ষ উদযাপন শুরু হচ্ছে। এ উপলক্ষে ওই দিন একটি নির্দিষ্ট সময়ে সারাদেশের ৬৫ হাজার ৬২০ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একযোগে এই লেখার পাঠ আয়োজন করা হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এ উদ্যোগ নিয়েছে।

আরো পড়ুন: প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ‘কষ্ট’ বাড়ছে

এ ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘জাতির পিতার জীবন ও সংগ্রামের তথ্যগুলো জানার মধ্য দিয়ে সারাদেশের প্রায় দেড় কোটি শিশুর মধ্যে দেশপ্রেম ও স্বাধীনতার চেতনা জাগ্রত করা এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। আজকের শিশুরাই ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ গড়ার মূল কারিগর। তাই তাদের উজ্জীবিত করার জন্যই এ উদ্যোগ।’

আরো পড়ুন: অবশেষে বেতন নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষকদের মধ্যে বৈষম্য দূর হচ্ছে​

জানা গেছে, গত ১০ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে অনানুষ্ঠানিক আলোচনা করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন। প্রধানমন্ত্রী এ প্রস্তাবে সম্মতি দেন।

আরো পড়ুন: প্রাক-প্রাথমিকের জন্য নতুন শিক্ষকের পদ সৃষ্টি হচ্ছে!

সচিব আকরাম আল হোসেন আরো বলেন, ‘কেবল এই লেখা পাঠই নয়; বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় একাধিক উদ্যোগ নিয়ে তা বাস্তবায়ন করছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়পডুয়া শিশুরা যেন শুদ্ধভাবে বাংলা ও ইংরেজি পড়তে পারে, সেটি সরকারের লক্ষ্য। আগামী ৩০ জুনের মধ্যে সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭০ শতাংশ শিশু সাবলীলভাবে বাংলা ও ইংরেজি রিডিং পড়তে পারবে। আর মুজিববর্ষের মধ্যে সারাদেশের শতভাগ শিশুই তা পারবে। এর বাইরে ‘ওয়ান ডে, ওয়ান ওয়ার্ড’ কর্মসূচির আওতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সব শিশুকে প্রতিদিন একটি বাংলা ও একটি ইংরেজি শব্দ শেখানো হচ্ছে।

আরো পড়ুন: সকল সরকারি চাকরিজীবীদের অর্থমন্ত্রীর নতুন নির্দেশনা

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব বলেন, ‘মুজিববর্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে শিক্ষাসহায়ক উপকরণ হিসেবে স্কুল ড্রেস, জুতা ও ব্যাগ কেনার জন্য ৫০০ টাকা করে দেবে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মুজিববর্ষে এটা শিক্ষার্থীদের জন্য উপহার। এছাড়া শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রতি মাসে ১০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫০ টাকা করা হতে পারে।’

আরো পড়ুন: পরীক্ষা করতে ছাত্রীদের বিবস্ত্র, সেই প্রধান শিক্ষিকা গ্রেপ্তার​

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ‘১৭ মার্চ মুজিববর্ষের শুরুতেই সারাদেশের প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ প্রাথমিক শিক্ষার্থীর মায়েদের কাছে নতুন পোশাকের জন্য টাকা দেওয়া হবে। এ জন্য এখন থেকেই মন্ত্রণালয় প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।’

আরো পড়ুন: এসএসসি পাশ করলেই নৌবাহিনীতে চাকরি​

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের মানসিকভাবে প্রফুল্ল রাখতে সরকার সচেষ্ট। সে কারণে প্রতি বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে পাঠ্যবই ও উপবৃত্তির টাকা দেয়া হয়। এর বাইরে এবার মুজিববর্ষে শিক্ষা উপকরণ কেনার জন্য এককালীন ৫০০ টাকা করে দেয়া হবে। এ জন্য একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।’

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত