ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ২৯ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৩৪

প্রিন্ট

বাংলায় এনআরসি-সিএএ করতে দেবো না: মমতা

বাংলায় এনআরসি-সিএএ করতে দেবো না: মমতা
মমতা ব্যানার্জি

ময়ুখ বসু, কলকাতা

আসামে যেই ভোট হয়ে গেছে অমনি ডিটেনশন ক্যাম্পের নোটিশ ধরাতে শুরু করেছে বিজেপি। এটাই বিজেপির আসল চরিত্র। আমি আমাদের বাংলায় কোন এনআরসি এবং সিএএ করতে দেবো না। সব উদ্বাস্তুরাই আমাদের দেশের নাগরিক। ধুপগুড়ির জনসভা থেকে এভাবেই বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন,আসামে ভোট পর্ব শেষ হতেই আর ফলের জন্য দেরি করেনি বিজেপি। ভোট শেষ হতেই তারা ডিটেনশন ক্যাম্পের নোটিশ দিতে শুরু করেছে। আসামের মানুষ আজ দিশেহারা। বাংলাতেও ভোটে জিতে বিজেপি ওই একই পথে হাঁটবে। বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এলে অন্তত ৫০ লাখ মানুষকে ডিটেনশন ক্যাম্পে যেতে হবে। ওদের মুখের কথায় বিশ্বাস করবেন না। কিন্ত আমি বাংলায় এনআরসি হতে দেবো না। সবাই এই দেশের নাগরিক।

সেখানে দাঁড়িয়ে বিজেপির এই এনআরসি রাজনীতি আমি কোনভাবেই বাংলায় কায়েম করতে দেবো না। উল্লেখ্য, অমিত শাহ এরআগে উত্তর ২৪ পরগণা জেলার ঠাকুর নগরে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, করোনা সঙ্কট মিটলে সিএএ চালু করা হবে। আবার গতকাল উত্তরবঙ্গে দাড়িয়ে তিনি বলেছেন, এখনই এনআরসি বা সিএএ চালু করার পরিকল্পনা নেই তাদের। আর এখানেই রাজনৈতিক মহলে ধোঁয়াশা বেড়েছে।

আসলে বিজেপি নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বাংলায় কি করতে চাইছে তা পরিষ্কার হচ্ছে না অনেকের কাছেই। ফলে সেখানে দাঁড়িয়ে মমতার লাগাতার এনআরসি ও সিএএ বিরোধীতা একটু একটু করে হলেও জনমনে প্রভাব পড়ছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। মমতা বলেন, আমি বাংলার মানুষের পাহারাদার। তবে আমি গুলি করে লোক মারার চৌকিদার নই। বিজেপি বাংলায় এলে মানুষের জীবন বিপন্ন হবে। মানুষের ঘরবাড়ি নিয়ে টান মারবে বিজেপি। তাই সবার কাছে অনুরোধ বিজেপিকে ঠেকাতে তৃণমূলকে ভোট দিন। মমতা বলেন, বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইতে একা আমি জিতলে চলবে না।

এই লড়াইতে সবাইকে জিততে হবে। বাংলার মা বোনেরাই পারেন আমাদের সরকারকে ক্ষমতায় আনতে। তাই সবাইকে জোড়া ফুল চিহ্নে ভোট দিতে হবে। মমতা এদিন আওয়াজ তোলেন, বিজেপি হঠাও, গোলি হঠাও দেশ বাঁচাও। তিনি বলেন, বিজেপিকে বাংলায় মাঠের বাইরে বের করে দিতে হবে। বাংলা মাকে বাঁচাতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/নকি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত