ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮ আপডেট : ২১ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৩ মে ২০২১, ১৫:২৩

প্রিন্ট

মোস্তফা কামাল পাশার কবিতা ‘কষ্টগুলে মেশক আম্বর’

মোস্তফা কামাল পাশার কবিতা ‘কষ্টগুলে মেশক আম্বর’

মোস্তফা কামাল পাশা

কষ্ট-খুব কষ্ট! কষ্টের জমাট ডেলা আটকে

থাকে কন্ঠনালীর সীমান্ত লাইনে!

জবাই মুরগিটি ধরপড়ায়-ছটফটায়-পাখা ঝাপ্টায় শ্বাসকষ্টের তীব্র যন্ত্রণার দাপাদাপিতে

জীবনীশক্তির শেষ ফোটা নিঃশ্বেষ হয়,

হায়রে অক্সিজেনের এতো অভাব!

রক্তভেজা কাদায় অথবা বদ্ধ ড্রামে মুখ থুবড়ে

পড়ে থাকে অবোধ পক্ষিটি!

মানবিক নিষ্ঠুরতায় ছালমুক্ত হয়ে

উঠে আসে রসনাবিলাসীর কিচেনে।

হায়, মুরগি বা জবাই পশুর মৃত্যু যন্ত্রণা কখনো

এমন করে বুকে বাজেনি!

কোরবানির জবাই পশুর ছিন্ন গলার

রক্ত ঝর্ণার টকটকে ফিনকি ছিটকায়।

রক্তমাখা কিরিচধারী ইমামের সুদৃশ্য সফেদ

পান্জাবির কোণা লাল হয়। কন্ঠনালি টিপেধরা আনাড়িরে ধমকান তিনি প্রচন্ড রোষে-

-পান্জাবিতে সৌদির মেশক-আম্বর মাখা ছিল।

রক্তের ঝাঁজাল গন্ধ-মেশক আম্বরের সুরভি

কেড়ে নিল! ধবল পান্জাবি আর মেশক আম্বরের শোকে বহুৎ কাতর হুজুরে পাক!

গলাকাটা পশু শ্বাসকষ্টের যন্ত্রণায় জান্তব গড়গড়

শব্দে মাথা আছড়ায় আল্লাহর আরশ বরাবর;

রশি বাঁধা পা পারেনা নাড়াতে। দ্রুতই রক্তডোবায়

মাথাটা থুবড়ে পড়ে, নিশ্চল হয় বিরাট শরীর।

তীক্ষ্ণধার ছুরি শানিয়ে কসাই পোঁচ চালায় পশুর

পায়ের গোছে-সময় নেই তাদের বেজায় তাড়া।

টাটকা সব স্মৃতি ডানা ঝাপ্টায় পাঁজরে

ঠোক্করে-ঠোক্করে রক্তাক্ত করে বুক!

কষ্ট-অসহ্য কষ্ট! কষ্টের চালান কন্টেনার ভরে

বিদেশে রপ্তানি হয়না কেনো-

নিঃশ্বাসে অকস্মাৎ ব্রেক পড়ে-বুকে চাপ চাপ

জমাট কষ্ট আটকেই থাকে!

সবাই চলে যায়-কেন যায়-কেন যেতে হয়?

ঝুলে আছে-সৃষ্টির শুরু থেকে এই প্রশ্ন

আসা যাওয়ার খেলা চলছে-চলবেই।

কী জানি, কষ্টের রঙ কী নীল, না কালো,

সবুজ নাকি বেগুনি অথবা হলুদ?

হতেই পারেনা, সাদা শুধুই সাদা! সাদা রঙহীন সেলাইছাড়া থান কাপড়ের রঙ!

চলে যাচ্ছেন বহু নামজাদা, ভিআইপিও

আরো অনেকে, শুভাকাঙ্খী আপন!

আমরা লাইনে-শিগগিরই আসছি

তোমাদেরতো বেশি তাড়া,

আমরা বুঝি বড্ডো আলসে!

লেখক: কবি, সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত