ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ২১ অক্টোবর ২০২০, ১২:২২

প্রিন্ট

অন্ধ্রপ্রদেশে ২ নভেম্বর খুলছে স্কুল, ক্লাস হবে নতুন নিয়মে

অন্ধ্রপ্রদেশে ২ নভেম্বর খুলছে স্কুল, ক্লাস হবে নতুন নিয়মে
ফাইল ফটো
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো ভারত। দেশটির কিছু রাজ্যে নিজস্ব নিয়মে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের হাজিরার কথা ঘোষণা করা হলেও বন্ধ রাখা হয়েছিলো স্কুল। ক্লাস চলছিলো অনলাইনেই। এবার দুই নভেম্বর থেকে অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের সব স্কুল খুলে যাচ্ছে। খবর এইসময়ের

গত মঙ্গলবার একটি ভিডিও কনফারেন্সে স্কুল খুলে দেয়ার ঘোষণা দেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াই এস জগন মোহন রেড্ডি। তিনি জানান, বিজোড় সংখ্যার ক্লাসের একদিন স্কুল হবে, জোড়া সংখ্যার ক্লাসের আরেকদিন ক্লাস হবে।

অর্থাৎ, পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা যেদিন স্কুলে যাবে, সেদিন ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা যাবে না। ষষ্ঠ, অষ্টম, দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা পরদিন ক্লাস করবে। এই নতুন নিয়মের ফলে প্রত্যেক শিক্ষার্থী একদিন স্কুলে যাবে একদিন বাড়িতে থাকবে।

অন্যদিকে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৭৫০ জনের অধিক শিক্ষার্থী রয়েছে সেগুলো সপ্তাহে তিনদিন খোলার অনুমতি দেয়া হয়েছে। প্রতিটি স্কুলে মিড ডে মিল চালু করারও ঘোষণা দেয়া হয়েছে। তবে প্রতিটি স্কুলের শিফট হবে সকালে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এইসময় তাদের প্রতিবেদনে আরো জানিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, নভেম্বর থেকেই এই কাজ শুরু হয়ে যাবে। এক মাস পর ফের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে যে, ডিসেম্বরেও স্কুল খোলা থাকবে কি না। তবে যে শিক্ষার্থীরা করোনার কারণে স্কুলে যেতে চাইছেন না, তারা অনলাইনে ক্লাস করতে পারবে।

গত মার্চ মাস থেকে দেশটির সব রাজ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কেন্দ্রের প্রথম ধাপের লকডাউন ঘোষণার পর থেকেই দেশজুড়ে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। করোনার বিধি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে মেনে এবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

আনলক ৫- এই অনুমতি দেয়া হয়েছে। আনলক ৫-এর কেন্দ্রীয় ঘোষণার পর অভিভাবকদের লিখিত নিয়ে পাঞ্জাব ও উত্তরপ্রদেশের বেশকিছু সরকারি স্কুল খোলা হয়েছে। তবে স্কুলে শিক্ষার্থীদের আসতেই হবে এমন বাধ্যবাধকতা রাখা হয়নি।

এছাড়া আগামী কয়েকদিনের মধ্যে রাজ্যের সমস্ত স্কুলের পরিকাঠামো উন্নয়নের নির্দেশও দিয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াই এস জগন মোহন রেড্ডি। এমনকি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলোকেও জায়ড়া তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত