ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:২৪

প্রিন্ট

অনুগল্প: কিম্ভুতকিমাকার

অনুগল্প: কিম্ভুতকিমাকার
জাহিদুল কবির রিটন

পকেটের অবশিষ্ট টাকা দিয়ে দুই কেজি চাল আর এক কেজি আলু কিনতেই সব ফুরিয়ে গেল। আগামী দিনগুলোতে সংসার কিভাবে চলবে সে জানে না।শুধু সে নয়,তার দুই কর্মচারী; ঘোর অনিশ্চয়তা সোলায়মানদের চোখে মুখে।

সরকারি জায়গায় ছিল সোলায়মানের ছোট ভাতের হোটেল।দিন-মজুরদের কাছে হোটেলটি ছিল পছন্দের তালিকার শীর্ষে।

শান্তিতে ছিল সে;ব্যাবসা,বউ,স্কুলগামী দুই ছেলে-মেয়ে আর দুধের কন্যা সন্তানটিকে নিয়ে।

আচমকা এলো ঝড়। একদিনের নোটিশে বুলডোজার তছনছ করে দিল তার হোটেলটি সহ সেখানকার সবকিছু।

প্রতিবাদ ও হট্টগোলেই অনূগ্রহের দেয়া নির্ধারিত সময়ের অনেকটাই চলে গিয়েছিল।সবকিছু সরাবার সুযোগও পাওয়া যায়নি অবশেষে।

সেখানে নির্মিতব্য গণশৌচাগারটা নানা ভঙ্গিতে ভেসে উঠছে সোলায়মানের চোখে ।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত