ঢাকা, সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ৯ মিনিট আগে
শিরোনাম

রোবট অলিম্পিয়াডে ১৩টি পদক পেয়েছে বাংলাদেশ

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২৩, ০১:৩৪

রোবট অলিম্পিয়াডে ১৩টি পদক পেয়েছে বাংলাদেশ
রোবট অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের বিজয়ী শিক্ষার্থীরা। ছবি: সংগৃহীত
জার্নাল ডেস্ক

আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে একটি স্বর্ণ, দুটি রূপা, দুটি ব্রোঞ্জসহ আটটি কারিগরি পদক পেয়েছে বাংলাদেশ দল। এবারের অলিম্পিয়াডে বিভিন্ন দেশের প্রায় দেড় হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে বাংলাদেশ থেকে অংশ নেয় ১৪ জন। ২০১৮ সাল থেকে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা ধারাবাহিকভাবে আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে অংশ নিচ্ছে।

গত ১২ থেকে ১৫ জানুয়ারি থাইল্যান্ডের ফুকেটে অনুষ্ঠিত ২৪তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে সোমবার বিজয়ীদের এ পদক দেয়া হয়।

প্রতিযোগিতায় রোবট ইন মুভির চ্যালেঞ্জ গ্রুপে স্বর্ণপদক পেয়েছেন অ্যাফিসিয়েনাদোস দলের সদস্য মাইশা সোবহান, সামিয়া মেহনাজ ও মার্জিয়া আফিফা। জুনিয়র গ্রুপে রোবোস্পারকার্স দলের সদস্য জাইমা যাহিন ওয়ারা, মাহরুজ মোহাম্মদ ও শবনম খান পেয়েছেন রৌপ্য পদক। ক্রিয়েটিভ বিভাগের চ্যালেঞ্জ গ্রুপে রৌপ্য পদক পেয়েছেন জিরোথ দলের সদস্য নুসাইবা তাজরিন, সাদিয়া আনজুম ও বি এম হামীম। রোবট ইন মুভির চ্যালেঞ্জ গ্রুপে ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছেন জিরোথ দলের সদস্য নুসাইবা তাজরিন, সাদিয়া আনজুম ও বি এম হামীম এবং রোবোটাইগার্স দলের নাশীতাত যাইনাহ রহমান ও কাজী মোস্তাহিদ।

কারিগরি পদক যারা পেয়েছেন- ক্রিয়েটিভ বিভাগের চ্যালেঞ্জ গ্রুপে রোবোটাইগার্স দলের নাশীতাত যাইনাহ রহমান, কাজী মোস্তাহিদ ও আবরার শহীদ, জুনিয়র গ্রুপে রোবোস্পারকার্স দলের জাইমা যাহিন ওয়ারা, মাহরুজ মোহাম্মদ আয়মান ও শবনম খান, এক্সফ্যানাটিক দলের মাহির তাজওয়ার চৌধুরী, রোবট ইন মুভি চ্যালেঞ্জ গ্রুপে এক্সফ্যানাটিক দলের মাহির তাজওয়ার চৌধুরী ও আবরার শহীদ, ফিজিক্যাল কম্পিউটিং বিভাগে জিরোথ দলের নুসাইবা তাজরিন ও মার্জিয়া আফিফা, এফপিভি রেসিং সিমুলেটর বিভাগে মাহির তাজওয়ার চৌধুরী, এনার্জি সেভিং বিভাগে মো. ওমর করিম, কার্ট রোলিং বিভাগে মো. ওমর করিম ও রোবট গ্যাদারিং বিভাগে মো. ওমর করিম।

জানা গেছে, গত বছর অক্টোবরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের পঞ্চম জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতায় যৌথভাবে জাতীয় পর্ব আয়োজন করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিকস অ্যান্ড মেকাট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক।

বাংলাদেশ জার্নাল/জিকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত