ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : ৫০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০১৯, ১৩:০৯

প্রিন্ট

ব্যবসায় মুনাফা লাভের আমল

ব্যবসায় মুনাফা লাভের আমল
জার্নাল ডেস্ক

মানুষের বেঁচে থাকার জন্য মৌলিক কিছু চাহিদা থাকে। আর এ চাহিদা মেটাতে প্রয়োজন হয় অর্থের। অর্থ যেমনিভাবে নিজের প্রয়োজন মেটানোর জন্য উপার্জন করতে হয়, তদ্রুপ এটি বান্দার ওপর একটি ফরয হুকুমও। হযরত আব্দুল্লাহ রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল সা. বলেছেন, অন্যান্য ফরয ইবাদতের পর হালাল জীবিকা উপার্জন করা ফরয। (বাইহাকী, মেশকাত- ২৪২)।

জীবিকা উপার্জনের সবচে কার্যকরী মাধ্যম হলো হালাল ব্যবসা। নবী সা. নিজে ব্যবসা করেছেন, অন্যকে ব্যবসা করতে উৎসাহিত করেছেন। ব্যবসায়ীর উচ্চ মর্তবার কথাও ঘোষণা করেছেন। হযরত ইবনে উমর রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল সা. বলেছেন, সৎ ব্যবসায়ী কিয়ামতের দিন শহীদের সঙ্গে থাকবে। (সুনানে কুবরা- ২৬৬, তাবরানী- ৫৮৫)।

অনেকেই প্রচুর মূলধন নিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। অথচ কীভাবে ব্যবসায় বেশি লাভবান হওয়া যায়, তা জানে না। ফলে আশানুরূপ মুনাফা অর্জন করতে পারে না। সেজন্য অনেকে ব্যবসা ছেড়ে দেন। অথচ হাদিসের উপর আমল করে হওয়া যায় সর্বোচ্চ ও সফল বিক্রেতা।

প্রথমেই নিয়ত শুদ্ধ করে সৎ-ভাবে ব্যবসা করতে হবে। কারণ, হাদিসে প্রতিদানের ব্যাপারে সৎ ব্যবসায়ীর কথা বলা হয়েছে। তারপরে, ব্যবসায়ীর কথাবার্তা হতে হবে মধুর। ব্যবহারে থাকতে হবে কোমলতা। আচরণ হতে হবে মিষ্টি। অভিব্যক্তি থাকতে হবে প্রফুল্ল। তাহলে ব্যবসায়ে আসবে আসমানি বরকত। আর হাশর হবে শহীদের সঙ্গে।

হযরত আবু হুরাইরা রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল সা. ইরশাদ করেন, আল্লাহ তায়ালা কেনা-বেচা ও বিচার-আচারে কোমলতা ও নম্রতাকে পছন্দ করেন। (বুখারী-২৭৮, তারগীব- ২/৫৬২)। অপর এক হাদিসে আল্লাহর নবী সা. ইরশাদ করেন, লেনদেনে নম্রতা ও কোমলতা অবলম্বন করো, তোমাদের উপরও কোমলতা করা হবে। (তারগীব- ২৫৬৩)। সূত্র: আওয়ার ইসলাম

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত