ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : ৪১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:২৫

প্রিন্ট

যোগদান করেই ‘দুঃসংবাদ’ পেলো প্রাথমিক শিক্ষকরা

যোগদান করেই ‘দুঃসংবাদ’ পেলো প্রাথমিক শিক্ষকরা
অনলাইন ডেস্ক

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন জানিয়েছেন, সদ্য নিয়োগকৃত শিক্ষক-শিক্ষিকাকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হাওর, বাওর, উপকূল ও দুর্গম এলাকায় পদায়নের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। অতি সম্প্রতি ঘোষিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় চূড়ান্ত ফলাফল অনুযায়ী শিগগিরই সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ১৮ হাজার ১৪৭ জন সহকারি শিক্ষক নিয়োগ করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন: জুন থেকে নতুন সুবিধা পাবেন সরকারি চাকরিজীবীরা রোববার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের আনিত সিদ্ধান্ত প্রস্তাবের জবাব দিতে গিয়ে প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, ২০০৯ সাল হতে ২০১৯ সাল পর্যন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ১ লাখ ৭৯ হাজার ৭১৭ জন শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: সরকারি চাকরিজীবীরা পাচ্ছেন ৭৫ লাখ টাকা!

তিনি জানান, প্রতি বছর শিক্ষকদের অবসরজনিত কারণে শূন্য পদ সমূহে নিয়মিত শিক্ষক নিয়োগ করা হচ্ছে। বদলি মৃত্যুজনিত কারণ, পিটিআই, বিপিএড প্রশিক্ষণ মাতৃত্বকালীন ছুটি চিকিৎসাজনিত ছুটি, বিভিন্ন সময় প্রশিক্ষণজনিত কারণে সাময়িক শূন্য পদ পূরণের উদ্দেশ্যে সহকারি শিক্ষকের মোট পদের ২০ ভাগ অর্থাৎ ৬৮ হাজার ৩৩৮ ছুটি রিজার্ভ পদ সৃজন সরকারের সক্রিয় বিবেচনাধীন রয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রাথমিকের সকল সহকারী শিক্ষক ১৩তম গ্রেড পাবেন!​

প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন আরো জানান, চর অঞ্চল, উপকূল হাওর, বাওর অঞ্চলে এবং পাহাড়ী অঞ্চলে পাঠদানের উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ইউনিয়ন, স্থানীয় সরকার কোটায় শিক্ষক নীতিমালা প্রণয়নে আপাতত কোন পরিকল্পনা সরকারের নেই।

আরও পড়ুন: প্রাথমিকসহ সকল শিক্ষকদের জন্য কঠোর আইন!​

তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষক স্বল্পতা আছে। তবে এবিষয়ে নতুন নিয়োগকৃত শিক্ষক-শিক্ষিকারা তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে উপকূলীয় অঞ্চলে প্রথমে পদায়ন করতে চাচ্ছি। এবিষয়ে সমস্ত ডিপিওদের চিঠি দিয়েছি এবং নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: প্রাথমিকে শিক্ষকদের থেকে দপ্তরীর বেতন বেশি!

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত